নির্বাচিত খবর

অবশেষে ১৪ বছর পর ফিরছেন রোজিনা

বিনোদন ডেস্ক: দীর্ঘ ১৪ বছর পর আবারও সিনেমার ক্যামেরার সামনে দাঁড়াতে যাচ্ছেন জনপ্রিয় চিত্রনায়িকা রোজিনা। ছবির নাম ‘ফিরে দেখা’। চলতি অর্থ বছরে এটি অনুদান পেয়েছেন। অভিনয়ের পাশাপাশি ছবির কাহিনিকার, পরিচালক ও প্রযোজক হিসেবেও পাওয়া যাবে তাকে।

রোজিনা বলেন, ‘অভিনয়ের সুবাদে মানুষের ভালোবাসা অর্জন করেছি। যতো দূরেই থাকি না কেন, অভিনয় আমাকে খুব টানে। এই ছবির প্রযোজক ও পরিচালক আমি এবং গল্পও আমার তৈরি করা। গল্পটা আমার নানা বাড়ি গোয়ালন্দ ও দাদাবাড়ি রাজবাড়ীর। সেখানকার মুক্তিযুদ্ধের ঘটনা উঠে আসবে এতে। তাই ছবির পরিচালনাটাও আমি করছি।’

তিনি আরও জানান, এর কেন্দ্রীয় চরিত্র বকুল হিসেবে থাকছেন তিনি। এছাড়া এতে আরও ৪-৫ জন মুখ্য ভূমিকায় থাকবেন।

‘চরিত্রগুলোর জন্য অল্টারনেটিভ বেশ কয়েকজনের নাম প্রস্তাব দিয়ে রেখেছি। আসলে করোনা প্রকোপ না কমলে শুটিং করা বা চরিত্র চূড়ান্ত করা মুশকিল। কারণ, অনেকে হয়তো এমন সময়ে কাজ করবেন না। আবার এখন কতটা সতর্কভাবে কাজ করতে পারবো সেটাও বিষয়’—বললেন এই তারকা।

উল্লেখ্য, ১৯৭৮ সালে এফ কবির চৌধুরী পরিচালিত ‘রাজমহল’ ছবির মধ্যদিয়ে রূপালি ভুবনে অভিষেক হয় রোজিনার। তার অভিনীত অধিকাংশ ছবিই সুপারহিট হয়।

এরমধ্যে রয়েছে, চোখের মণি, সুখের সংসার, সাহেব, তাসের ঘর, হাসু আমার হাসু, হিসাব চাই, বন্ধু আমার, কসাই, জীবনধারা, সুলতানা ডাকু, মানসী, জনতা এক্সপ্রেস, অবিচার, দোলনা, দিনকাল, রসের বাইদানী, জীবনধারা, রূপবান, আলোমতি প্রেমকুমার, হুর-এ-আরব প্রভৃতি।

ভারতের জনপ্রিয় নায়ক মিঠুন চক্রবর্তী, পাকিস্তানের নাদিমের সঙ্গেও অভিনয় করেছেন রোজিনা। অভিনয়ের জন্য ভারত, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কাসহ বিভিন্ন দেশের ১০টিরও বেশি পুরস্কার পেয়েছেন তিনি। অভিনয় করতে করতে একসময় অবসরে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন। অনুভব করেন, এবার নিজেকে সময় দেওয়া দরকার। ১৯৯২ সালে ঘোষণা দেন, চলচ্চিত্রে আর নয়। হাতে থাকা ছবিগুলোর কাজ শেষ করতে করতে ১৯৯৪ সাল পার হয়ে যায়। পরের বছর তিনি পাড়ি জমান যুক্তরাজ্যে।

সর্বশেষ ২০০৬ সালে মতিন রহমানের ‘রাক্ষুসী’ ছবিতে অভিনয় করেন তিনি।

প্রিন্ট করুন

বিভাগ: বিনোদন