ইসরায়েলে নিষিদ্ধ মার্কিন কংগ্রেসের ২ মুসলিম নারী সদস্য

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: মার্কিন কংগ্রেসের দুই মুসলিম নারী সদস্যের ওপর ইসরায়েল সফরে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার ইসরায়েলের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে এ নিষেধাজ্ঞার কথা জানানো হয়েছে।

বৃহস্পতিবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের আহ্বানের পর পরই ইসরায়েল এ নিষেধাজ্ঞা জারি করে। ওই দুই মুসলিম নারী কংগ্রেস সদস্য হলেন-ইলহান ওমর ও রাশিদা তালিব।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইসরায়েলের আইন অনুযায়ী যারা ইসরায়েলকে বর্জনের আহ্বান জানান, তাদের ইসরায়েল সফর করতে দেওয়া হয় না। তারাই প্রথম দুই মুসলিম নারী, যারা মার্কিন কংগ্রেসের সদস্য হয়েছেন। আগামী রোববার তাদের ইসরায়েল সফরে যাওয়ার কথা ছিল।

গত মাসে যুক্তরাষ্ট্রে নিযুক্ত ইসরায়েলি রাষ্ট্রদূত রন ডেরমার বলেছিলেন, `যুক্তরাষ্ট্র ও ইসরায়েলের অসাধারণ বন্ধুত্ব ও মার্কিন কংগ্রেসের প্রতি সম্মান জানিয়ে ওই দুই মুসলিম নারী কংগ্রেস সদস্যকে ইসরায়েল সফরের অনুমতি দেওয়া হবে।’

তবে গতকাল প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প টুইটারে এক বার্তায় বলেন, ‘ওই দুই কংগ্রেস সদস্যকে ইসরায়েল সফরের অনুমতি দেওয়া হলে তা হবে ইসরায়েলের দুর্বলতা। তারা ইসরায়েল ও সব ইহুদিকে ঘৃণা করেন। কোনোভাবেই তাদের মানসিকতার পরিবর্তন ঘটানো যাবে না।’

ট্রাম্পের ওই টুইটার বার্তার পর পরই ইসরায়েল সফরে ওই দুই নারীর নিষেধাজ্ঞার কথা জানায় দেশটি।

সোমালি বংশোদ্ভূত ইলহান ওমর এবং ফিলিস্তিনি বংশোদ্ভূত রাশিদা তালিব প্রকাশ্যেই প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের অভিবাসীবিরোধী এবং মুসলিমবিরোধী নীতির কঠোর সমালোচক বলে পরিচিত।

প্রিন্ট করুন

বিভাগ: আন্তর্জাতিক