নির্বাচিত খবর

করোনা ভাইরাস কিনা- বুঝবেন যে ৮টি লক্ষণে

স্বাস্থ্য ডেস্ক: চীনের সবচেয়ে জনবহুল শহর হুবেই প্রদেশের রাজধানী উহান থেকে শুরু হয়েছিল করোনা ভাইরাস আতঙ্ক। এটি এখন গোটা চীন ছাপিয়ে প্রতিবেশী দেশগুলোসহ তামাম বিশ্বে আতঙ্কের সৃষ্টি করেছে। করোনা ভাইরাস আক্রান্ত হয়ে চীনে এখন পর্যন্ত অন্তত ৪২৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। আক্রান্ত হয়ে জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে আছেন কয়েক হাজার মানুষ। ইতোমধ্যে চীনে বসবাসরত প্রবাসী বাংলাদেশিদের দেশে ফিরিয়ে আনা হচ্ছে। প্রাণঘাতি এই ভাইরাস প্রতিরোধে জরুরি নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

গেল জানুয়ারির শুরুর দিকে চীনে সর্বপ্রথম করোনা ভাইরাসের খবর পাওয়া গেলেও ধীরে ধীরে তা ছড়িয়ে পড়ছে গোটা বিশ্বে। থাইল্যান্ড, জাপান, ফিলিপাইন ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মতো অন্যান্য দেশ থেকেও এই ভাইরাস সংক্রমণের ঘটনা ঘটছে।

কীভাবে এই মারণ ভাইরাস প্রতিরোধ করা যায় কিংবা সংক্রমমিত ব্যক্তিদের চিকিৎসাইবা কিভাবে করা যায়- এ নিয়ে প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (WHO)।

প্রতিবেদন অনুযায়ী, চিকিৎসা বিশেষজ্ঞদের বিশ্বাস, ২০০৩ সালে ৮০০-রও বেশি মানুষের মৃত্যু ও হাজার হাজার মানুষের আক্রান্ত হওয়ার কারণ ‘সার্স’ (সিভিয়ার অ্যাকিউট রেসপিরেটরি সিন্ড্রোম) ভাইরাসের পরিবার থেকেই এসেছে এই নতুন ধরনের করোনা ভাইরাস। তারা আরও জানিয়েছেন যে এই ভাইরাসটি চীনের বাজারে পাওয়া প্রাণীজ পণ্য বা সামুদ্রিক খাবার থেকে মানুষের মধ্যে ছড়িয়ে পড়ছে।

হিউম্যান করোনা ভাইরাসের কারণে ফ্লু-এর মতো লক্ষণ দেখা দেয়, যা হালকা থেকে মাঝারি আকার ধারণ করে। অন্যদিকে মার্স ও সার্স মারাত্মক লক্ষণ সৃষ্টি করে।

করোনা ভাইরাসের পূর্ববর্তী ৮টি লক্ষণ হলো-
১. সর্দি
২. গলা ব্যথা
৩. কাশি
৪. মাথা ব্যাথা
৫. জ্বর
৬. হাঁচি
৭. অবসাদ
৮. শ্বাসকষ্ট

সাধারণত করোনা ভাইরাস আক্রান্ত হলে শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা অনেক কমে যায়। বয়স্কদেরই এই ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা বেশি থাকে। এ থেকে নিউমোনিয়া বা শ্বাসনালীর ব্যাধির মতো মারাত্মক অসুস্থতায় আক্রান্ত হওয়ারও ঝুঁকি থাকে।

প্রিন্ট করুন

বিভাগ: স্বাস্থ্য