করোনা ভাইরাস: স্পেনে মৃত্যু বেড়ে ৫৩৩

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : করোনা ভাইরাসে স্পেনে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আরও ১৯১ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে দেশটিতে মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫৩৩ জনে। দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন। করোনায় নতুন করে ১ হাজার ৮৮৪ জনসহ মোট আক্রান্ত হয়েছে ১১ হাজার ৮২৬ জন।

এছাড়া ১ হাজার ২৮ জন সুস্থ হয়েছে বাড়ি ফিরেছেন। বর্তমানে ১০ হাজার ২৬৫ জন আক্রান্ত রোগী রয়েছেন। তাদের মধ্যে ৯ হাজার ৭০২ (৯৫ শতাংশ) জনের অবস্থা সাধারণ (স্থিতিশীল অথবা উন্নতির দিকে) এবং বাকি ৫৬৩ (৫ শতাংশ) জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। আক্রান্তের অনুপাতে মৃত্যুর হার ৩৪ শতাংশ এবং সুস্থতার হার ৬৬ শতাংশ।

রাজধানী মাদ্রিদে দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সেন্টার ফর হেলথ এলার্টস অ্যান্ড ইমারজেন্সিসের পরিচালক ফার্নান্দো সিমন এসব তথ্য জানান। তিনি বলেন, নতুন করে ১ হাজার ৯৮৭ জনের ডায়াগনসিস করা হয়। আক্রান্তদের বেশিরভাগই দেশটির রাজধানী মাদ্রিদে বলে জানান তিনি।ব্রেকিংনিউজ

এদিকে, করোনা ভাইরাসের বিস্তার রোধে দেশজুড়ে শনিবার লকডাউন ঘোষণা করেছে স্পেন সরকার। সরকার জনসাধারণকে বাসায় থাকার জন্য নির্দেশ দিয়েছে। রেস্তোরাঁ, বার, ক্যাফে বন্ধ করতে বলেছে। দুই সপ্তাহের এই সময়ে খাবার দোকান ও ফার্মেসি ছাড়া কোনও ধরনের দোকান খোলা রাখা যাবে না। এ সময়ে খাবার, ওষুধ কেনা, হাসপাতাল বা অফিসে যাওয়া ছাড়া আর কোনও কাজ করতে পারবে না।

উল্লেখ্য, চীনে করোনা ভাইরাস প্রায় নিয়ন্ত্রণে চলে এসেছে। কিন্তু চীনের বাইরে অন্যান্য দেশে ব্যাপক আকারে বাড়ছে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা। এতে বিশ্বব্যাপী প্রচণ্ড আতঙ্ক ও ভয়ের সৃষ্টি হয়েছে।

করোনা ভাইরাসে গত ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বজুড়ে ৮৪৬ জনসহ মোট মৃত্যু হয়েছে ৭ হাজার ৯৯৪ জনের। এর মধ্যে উৎপত্তিস্থল চীনে মৃতের সংখ্যা ৩ হাজার ২৩৭। চীনের বাইরে মারা গেছে ৪ হাজার ৭৫৭ জন।

এ ভাইরাসে বিশ্বজুড়ে মোট আক্রান্ত হয়েছে ১ লাখ ৯৯ হাজার ৩০৯ জন। এর মধ্যে ৮২ হাজার ৭৮৩ জন সুস্থ হয়েছে বাড়ি ফিরেছেন। চীনে আক্রান্তের সংখ্যা ৮০ হাজার ৮৯৪। দেশটিতে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৬৯ হাজার ৬১৪ জন। এছাড়া চীনের বাইরে আক্রান্তের সংখ্যা ১ লাখ ১৮ হাজার ৪১৫ জন মানুষ।

বিশ্বজুড়ে বর্তমানে ১ লাখ ৮ হাজার ৫৩২ জন আক্রান্ত রোগী রয়েছেন। তাদের মধ্যে ১ লাখ ২ হাজার ১১৫ জনের অবস্থা সাধারণ (স্থিতিশীল অথবা উন্নতির দিকে) এবং বাকি ৬ হাজার ৪১৭ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। আক্রান্তের অনুপাতে মৃত্যুর হার ৯ শতাংশ এবং সুস্থতার হার ৯১ শতাংশ।

এর আগে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) প্রধান ড. টেড্রস আধানম গেব্রেইয়সুস অসন্তোষ প্রকাশ করে বলেছেন, সরকারগুলো এই বৈশ্বিক মহামারি ঠেকাতে যথেষ্ট পদক্ষেপ নিচ্ছে না। তিনি সরকারগুলোকে নিজ নিজ দেশের করোনাভাইরাস পরীক্ষার ব্যবস্থা আরও বাড়ানোর ওপর জোর দিয়েছেন।

চীনে উদ্ভূত করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রতিদিনই বাড়ছে মৃত্যু ও আক্রান্তের সংখ্যা। এখন পর্যন্ত বিশ্বের ১৬৫টি দেশে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছে।

প্রিন্ট করুন

বিভাগ: আন্তর্জাতিক