ক্যাম্পাসের জনপ্রিয় শিল্পিদের নিয়ে জমকালো কনসার্টের আয়োজন করতে যাচ্ছে জবি প্রশাসন

জবি প্রতিনিধি : আগামী রোববার (২০ অক্টোবর) জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) ১৪তম  প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ক্যাম্পাসের ৯টি জনপ্রিয় ব্যান্ডদল শিল্পীদের নিয়ে জমকালো কনসার্টের আয়োজন করতে যাচ্ছে প্রশাসন।  এই ছাড়া সাথে থাকছে নাটকসহ আরো নানা কর্মসূচি । তবে এবার কোন স্পন্সর ছাড়াই নিজস্ব অর্থায়নে বিশ্ববিদ্যালয় দিবস আয়োজন করতে যাচ্ছে প্রশাসন। জনপ্রিয় ব্যান্ডদল হলো গল্প, আবোল তাবোল, মনের মানুষ, ট্রাভেলারস, ডি মাইনর , অব্যয়, বিভস, অভিকর্ষ ও মেয়েদের জনপ্রিয় ব্যান্ডদল এফ মাইনর এরা দুপুর ২টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত ধারাবাহিকভাবে গান করে যাবেন । ইতোমধ্যে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় দিবস-২০১৯ উপলক্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাস ও  বিভিন্ন ভবনসমূহ আলোক সজ্জায় সজ্জিত করা হয়েছে।
এই বিষয়ে জানতে চাইলে উপাচার্য অধ্যাপক ড.মীজানুর রহমান জানান, বিশ্ববিদ্যাল দিবসে ক্যাম্পাসের নাম করা শিল্পিদের দিয়ে কনসার্ট আয়োজন করা হবে। ক্যাম্পাসের অনেক ব্যান্ড দল আছে যারা নিয়মিত দেশে ও দেশের বাহিরে গান করতে যান । দর্শকের ভাল জনপ্রিয়তা ও পায় ।  কিন্তু  প্রতিবছর বাহিরে শিল্পী দিয়ে কনসার্ট করায় আমাদের ক্যাম্পাসের  শিল্পীরা সুযোগ পায় না । তাই এই বছর আমাদের ক্যাম্পাসের  শিল্পীদের নিয়ে  প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী জমকালো আয়োজন করা হবে বলে জানিয়েছেন তিনি। স্পন্সর ব্যাপারে জানতে চাইলে উপার্চায অধ্যাপক ড. মীজানুর রহমান বলেন প্রতিবার আমরা স্পন্সর নিয়ে আসলেও এবার আমরা নিচ্ছিনা। তাদের ব্যানার আর প্রচারনায় আমাদের ক্যাম্পাস ছেয়ে যায় । যার ফলে পুরো ক্যাম্পাসে ওই কোম্পানীর  লোগো ছাড়া আর কিছু দেখা যায় না । তাই এবার সম্পূর্ণ আয়োজন বিশ^বিদ্যালয়ের অর্থায়নে করা হবে বলে জানান তিনি। এছাড়া রোববার (২০ অক্টোবর) সকাল ৯টা ১০ মিনিটে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় দিবস-২০১৯ উপলক্ষে জাতীয় সংগীত পরিবেশন করা হবে। এরপর জাতীয় পতাকা এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের পতাকা উত্তোলন ও বেলুন -পায়রা ওড়ানোর মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠান উদ্বোধন করবেন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মীজানুর রহমান।এরপর সকাল সাড়ে ৯টায় প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে শোভাযাত্রার আয়োজন করা হবে। উপাচার্যের নেতৃত্বে শোভাযাত্রাটি শহীদ মিনার চত্বর থেকে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস প্রদক্ষিণ করে রায় সাহেব বাজার মোড় হয়ে ঘুরে বাংলাবাজার ওভারব্রিজ পরিক্রমণ করে ক্যাম্পাসের দ্বিতীয় গেট দিয়ে প্রবেশ করবে। এছাড়া বিভিন্ন অনুষ্ঠানের মধ্যে রয়েছে সকাল সাড়ে ১০টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক ভবনের নিচতলায় চারুকলা বিভাগের উদ্যোগে ‘বার্ষিক চারুকলা প্রদর্শনী’, সকাল ১১টায় কেন্দ্রীয় মিলনায়তনে আলোচনা সভা ও সাড়ে ১১টায় নাট্যকলা বিভাগের উদ্যোগে ‘লাল জমিন’ নাটক পরিবেশনা, বেলা সাড়ে ১২টায় সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের সামনে সংগীত বিভাগের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে ‘সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান’ এবং ভাষা শহীদ রফিক ভবনের নিচতলায় দিনব্যাপী ‘প্রকাশনা উৎসব’ অনুষ্ঠিত হবে।
প্রিন্ট করুন

বিভাগ: খুলনা,শিক্ষাঙ্গান