খালেদা জিয়ার ‘গ্রেফতারি পরোয়ানার’ আদেশ ১১ অক্টোবর

স্টাফ করেসপডেন্ট: ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত ও বিভিন্ন শ্রেণির মধ্যে বিরোধ সৃষ্টির অভিযোগে করা মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানার বিষয়ে আদেশের জন্য ১১ অক্টোবর দিন ধার্য করেছেন আদালত।

রবিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) ঢাকার অতিরিক্ত মুখ্য মহানগর হাকিম আসাদুজ্জামান নূর এ তারিখ ধার্য করেন। এদিন কারাবন্দি সাবেক এই প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানার বিষয়ে আদেশের জন্য দিন ধার্য ছিলো। কিন্তু আদালত তা পিছিয়ে দেন।

গত ৩০ জুন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে প্রতিবেদন দাখিল করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা শাহবাগ থানার ওসি (তদন্ত) জাফর আলী বিশ্বাস। এ মামলায় গত ২৩ জুলাই খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির আবেদন করেন মামলার বাদী এ বি সিদ্দিকী। তার এই আবেদনের আদেশ কয়েক দফা পেছাল।

২০১৪ সালের ১৪ অক্টোবর বিকেলে ইঞ্জিনিয়ার ইনস্টিটিউটে শুভ বিজয়া অনুষ্ঠানে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময়কালে খালেদা জিয়া বলেছিলেন, ‘বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ধর্ম নিরপেক্ষতার মুখোশ পরে আছে। আসলে দলটি ধর্মহীনতায় বিশ্বাসী। আওয়ামী লীগের কাছে কোনো ধর্মের মানুষ নিরাপদ নয়। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এসে হিন্দুদের সম্পত্তি দখল করেছে। হিন্দুদের ওপর হামলা করেছে।’

খালেদা জিয়ার এসব বক্তব্য যেমন ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত করেছে, তেমনি হিন্দু ও মুসলমানদের মধ্যে শ্রেণিগত বিভেদও সৃষ্টি করেছে। যা দণ্ডবিধির ১৫৩(ক) ও ২৯৫(ক) ধারার অপরাধ। এমন অভিযোগ এনে ২০১৪ সালের ২১ অক্টোবর বাংলাদেশ জননেত্রী পরিষদ নামের একটি সংগঠনের সভাপতি এ বি সিদ্দিকী।

বিডি সংবাদ টোয়েন্টিফোর ডটকম/

প্রিন্ট করুন

বিভাগ: আইন-আদালত