খাশোগিকে হত্যা পূর্বপরিকল্পিত: সৌদি আরব

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: কনস্যুলেটে ভেতর সাংবাদিক জামাল খাশোগি নিখোঁজের কথাই স্বীকারই করছিলো না সৌদি আরব। তাদের সমালোচক এই সাংবাদিককে যে হত্যা করা হয়েছে তুরস্কের এমন দাবি প্রত্যাখ্যান করেছিল সৌদি। শেষমেষ স্বীকার করে সৌদি। তবে তাদের দাবি ছিল জিজ্ঞাসাবাদের সময় ভুলবশতভাবে মৃত্যু হয়েছে।

রাজপরিবারের এই দাবিও প্রত্যাখ্যান করে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়। এবার সেখান থেকে সরে এসেছে রিয়াদ। সৌদি আরব জানিয়েছে, তুরস্কের কাছ থেকে পাওয়া তথ্যে এটাই প্রমাণিত হয় যে সাংবাদিক জামাল খাশোগিকে হত্যা পূর্বপরিকল্পিত।

এক সরকারি কৌঁসুলির বরাতে বৃহস্পতিবার (২৫ অক্টোবর) দেশটির রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম আল-ইকবারিয়া টিভি এ খবর দিয়েছে।

ইকবারিয়ার খবরে বলা হয়েছে, খাশোগির ঘটনা তদন্তে গঠিত সৌদি আরব ও তুরস্কের যৌথ টাস্ক ফোর্সের কাছ থেকে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে ওই কৌঁসুলি একথা বলেছেন এবং এ তদন্তের ভিত্তিতেই কৌঁসুলিরা সন্দেহভাজনদের জিজ্ঞাসাবাদ করছেন।

তুরস্কের কর্মকর্তারা শুরু থেকেই বলে আসছিলেন খাশোগিকে হত্যা করার পর তার দেহ সরিয়ে দেয়ার জন্য টুকরো টুকরো করা হয়েছে।

তাদের কথার প্রমাণ হিসাবে তুর্কি গণমাধ্যমগুলোতে সৌদি টিমের সদস্যদের নাম, ছবি দেয়াসহ বিমানবন্দরে তাদের উপস্থিতি এবং ইস্তানম্বুলে তাদের পদচারণারও তথ্য দিয়েছে। খাসোগি সাজা আরেকজনের সিসি ক্যামেরার ছবিও তারা এ সপ্তাহে প্রকাশ করে।

আর এরপরই তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান বলেন, এ সাংবাদিককে হত্যা পূর্বপরিকল্পিত এবং এটি যে রাজনৈতিক অপরাধ তার স্পষ্ট প্রমাণ তুর্কি গোয়েন্দারা পেয়েছে।

এখন ওই সৌদি কৌঁসুলিও কার্যত তুরস্কের কথাই স্বীকার করে নিয়ে বলছেন, এ খুন ছিল পূর্বপরিকল্পিত।

বিডি সংবাদ টোয়েন্টিফোর ডটকম/

প্রিন্ট করুন

বিভাগ: আন্তর্জাতিক