খাশোগি হত্যায় যুবরাজ জড়িত: মার্কিন সিনেটর

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: সৌদি আরবের রাজতন্ত্রবিরোধী সাংবাদিক জামাল খাশোগির হত্যাকাণ্ডের সাথে পরিষ্কারভাবে সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান জড়িত। এমনটাই দাবি করেছেন মার্কিন কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা বিভাগ সিআইএ।

মঙ্গলবার ( ৪ ডিসেম্বর) সিআইএ প্রধান জিনা হ্যাসপেল-এর সাথে বৈঠকের পর এ দাবি জানান তারা। রিপাবলিকান দলের সিনেটরদের দাবি হত্যার নির্দেশ দেয়া থেকে শুরু করে পুরো ঘটনার তদারকি করেন যুবরাজ মোহাম্মদ।

সিনেটের ফরেন রিলেশন কমিটির চেয়ারম্যান ও রিপালিকান দলের বব কর্কার বলেন, খাশোগি হত্যার ঘটনায় বিচারের মুখোমুখি দাঁড় করালে মাত্র ত্রিশ মিনিটের মধ্যেই দোষী প্রমাণিত হবেন মোহাম্মদ। সৌদির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে ও ইয়েমেনে সৌদি বাহিনীকে সব ধরনের মার্কিন সহায়তা বন্ধের আহ্বান জানান ডেমোক্রেট সিনেটররাও।

রুদ্ধদ্বার বৈঠকে পার্লামেন্টের উভয় কক্ষের সিনেটরদের খাশোগি হত্যার অডিও সম্পর্কে ব্রিফ করেন সিআইএ প্রধান।

প্রসঙ্গত, তুরস্কের সৌদি দূতাবাসের ভেতর গত ২ অক্টোবর সাংবাদিক জামাল খাশোগিকে হত্যা করা হয়। সৌদি ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মাদ বিন সালমান ওই হত্যাকাণ্ডের নির্দেশ দিয়েছেন বলে সিআইএর অনুসন্ধানে উঠে আসার খবর বিশ্বের বিভিন্ন গণমাধ্যম জানিয়ে আসছে।

খাশোগি হত্যায় জড়িত ১১ জনকে অভিযুক্ত করেছে সৌদি সরকার, কিন্তু এর সঙ্গে যুবরাজ সালমানের কোনো ধরনের সম্পৃক্ততার কথা তারা শুরু থেকেই অস্বীকার করে আসছে।

মার্কিন গণমাধ্যমগুলো বলছে-হত্যার সঙ্গে সরাসরি জড়িত হিসেবে অভিযুক্ত সৌদ আল কাতানির সঙ্গে প্রিন্স সালমানের ১১টি বার্তা আদান-প্রদানের প্রমাণ রয়েছে সিআইএর হাতে।

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাই পম্পেও এবং প্রতিরক্ষামন্ত্রী জেমস ম্যাটিস গত সপ্তাহে সিনেটকে জানান, ক্রাউন প্রিন্সের সঙ্গে খাশোগি হত্যার কোনো সরাসরি প্রমাণ পাওয়া যায়নি। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পও বলেছেন-এ হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে সিআইএর অনুসন্ধানে পাওয়া তথ্য চূড়ান্ত নয়।

বিডি সংবাদ টোয়েন্টিফোর ডটকম/

প্রিন্ট করুন

বিভাগ: আন্তর্জাতিক