নির্বাচিত খবর

১৯শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং, ৪ঠা আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম

  “শুধু প্রশিক্ষণ গ্রহণ করলেই হবে না, প্রশিক্ষণ লব্দ জ্ঞানকে কাজে লাগাতে হবে”, ভিডিপি পুরুষ সদস্যদের উদ্দেশ্যে জেলা প্রশাসক, কুড়িগ্রাম       ঠাকুরগাঁওয়ে নবাগত পুলিশ সুপারের সাথে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় সভা       পাবনায় সরকারের উন্নয়ন প্রচারে কাজ করছে ‘উন্নয়ন সাফল্য প্রচার মঞ্চে’র এক ঝাঁক তরুণ       কুড়িগ্রামে যুবক-যুবতির মরদেহ উদ্ধার       ডোমারে বিদ্যুৎ অফিসের গাড়ী চালকের গলাকাটা লাশ উদ্ধার, আটক ৭       বিদ্যুৎ সমস্যা সমাধানের জন্য রাণীনগরে তৈরি হচ্ছে সাব-ষ্টেশন       রাণীনগরে গ্যাস ট্যাবলেট খেয়ে বৃদ্ধার আত্মহত্যা       বাগেরহাটে মেধাবী ছাত্রীদের মাঝে বাই-সাইকেল বিতরণ       তারেকের কথায় অনিতা-সুমন রাজীবের সুরে অনিতা-সুমন আসছে অনিতা-সুমনের ‘বন্ধু হতে চাই’       পার্বতীপুরে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ভারত-বাংলাদেশ ফ্রেন্ডশিপ পাইপলাইন নির্মান প্রকল্প উদ্বোধন    

ঘুম তাড়িয়ে মস্তিষ্ক সজাগ রাখে যে রং

লাইফস্টাইল অনলাইন ডেস্ক : শিরোনাম পড়ে হয়তো অবাক হবেন এই ভেবে যে রং-এর সঙ্গে ঘুমের কী সম্পর্ক? তবে গবেষণায় দেখা গেছে, চোখের ঘুম-ঘুম ভাব কেড়ে নিয়ে মস্তিষ্ক সজাগ করে তুলতে পারে একটি বিশেষ রং। রং-টির নাম সায়ান। সহজ করে বলতে গেলে, সবুজ আর নীল মেশালে যে রং হয় সে রকম।জীব বিজ্ঞানীদের মতে, এই রং-এর মধ্যে এমন একটি গোপন উপাদান আছে, যেটা এক ঝটকায় মানুষের ঘুম তাড়িয়ে মস্তিষ্ককে সজাগ করে তুলতে পারে।

যুক্তরাজ্যের ম্যানচেস্টার বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল গবেষক জানিয়েছেন যে, চোখের সামনে এই সায়ান রং বেশি মাত্রায় থাকলে মানুষের ঘুম কমে যায়। অন্যদিকে এই রং সরিয়ে রাখলে ঘুমিয়ে পড়া সহজ হয়।
চোখের সামনে এই রং-এর পরিবর্তন যদি তেমন একটা দৃশ্যমানও না হয় তাও এর প্রভাব অনুভব করা যায় বলে জানায় তারা।

গবেষকরা জানান, তারা কম্পিউটার এবং মোবাইলের স্ক্রিনের জন্য এমন কোন জিনিষ তৈরি করতে চান যেটা দিয়ে সায়ানের রং-এর মাত্রা কমানো বাড়ানো যাবে।

‘নাইট মোড’
ঘুম গবেষকরা এরই মধ্যে ঘুমের সঙ্গে রং-এর একটি সম্পর্ক স্থাপন করেছেন। বিশেষ করে বিভিন্ন ডিভাইস থেকে যে নীল রং-এর আলো বিচ্ছুরণ হয় সেটা ঘুমের বিলম্ব করে বলে চিহ্নিত করেছে।

এ কারণেই স্মার্টফোন বা ল্যাপটপের সেটিংসে নাইট মুড নামে একটি অপশন থাকে।

যেটা এই ব্লু লাইটের পরিমাণ কমিয়ে দিতে সহায়তা করে। এতে রাতের বেলা ঘুমের ব্যাঘাত কম হয়।

এ নিয়ে ম্যানচেস্টার বিশ্ববিদ্যালয়ের জীব বিজ্ঞানীরা সুইজারল্যান্ডের বাসেন শহরে গবেষণা পরিচালনা করে।

এই গবেষণা নিয়ে ‘স্লিপ’ নামে একটি জার্নাল প্রকাশ করেন তারা। সেখানে সায়ান রং-এর কয়েকটি বিশেষ প্রভাবের কথা উঠে আসে।

যখন মানুষ চোখের সামনে কম বা বেশি পরিমাণ সায়ান রং দেখতে পায় তখন গবেষকরা তাদের লালার নমুনা থেকে স্লিপ হরমোনের মাত্রার তারতম্য পরিমাপ করতে পারে।

অধ্যাপক রব লুকাস জানান, কারো জন্য এটা জরুরি নয় যে সে নিজে রং-এর পার্থক্য দেখতে পারছেন কিনা।

খালি চোখে এই পার্থক্য দৃশ্যমান না হলেও শরীর এই পরিবর্তনের কারণে কোন প্রতিক্রিয়া দেখাচ্ছে কিনা সেটা বেশি জরুরি।

তিনি বলেন, সায়ান রং-এর সাথে মিলিয়ে যদি অন্য কোন রং তৈরি করা হয় তাহলে সেটাও মানুষের ঘুমে প্রভাব ফেলতে পারে।

সবুজের এমন বিভিন্ন শেডে সায়ান রঙ মেশানো থাকতে পারে। সেক্ষেত্রে সায়ানের কাছাকাছি অন্য কোন রং মিশিয়ে কাঙ্ক্ষিত রং তৈরি করা যেতে পারে। সূত্র: বিবিসি

প্রিন্ট করুন

বিভাগ: লাইফস্টাইল