চুলের যত্নে ডিম

লাইফস্টাইল ডেস্ক : স্বাস্থ্যজ্জ্বল, ঝলমলে, ঘন, কালো চুল কার না পছন্দ? কিন্তু চাইলেই কি পাওয়া যায়? আবার আপনার সুন্দর চুল থাকলেও তা নানা কারণেই ক্ষতিগ্রস্থ হয়। আর এ জন্যই চুলের নিতে হয় বাড়তি যত্ন। চুলের যত্নে অনেকেই নামী-দামি শ্যাম্পু, কন্ডিশনার ব্যবহার করছেন কিন্তু কাঙ্খিত ফলাফল পাচ্ছেন না। তাদের জন্য ডিম হতে পারে উত্তম সমাধান।

চুলের যত্নে ডিম খুবই উপকারী। ডিমে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে খনিজ, প্রোটিন এবং ভিটামিন বি কমপ্লেক্স। এগুলো দুর্বল চুলের জন্য দারুণ উপকারী। এগুলো চুল পড়া রোধ করে এবং একই সঙ্গে চুলের বৃদ্ধি ঘটায়।

চুলের যত্নে ডিম নানাভাবে ব্যবহার করতে পারবেন। কয়েকটি পদ্ধতি দেওয়া হল-

১. একটা বাটিতে ডিমের কুসুম ভালভাবে ফেটে নিন। আরেকটা বাটিতে ২ টেবিলচামচ টক দই ভালভাবে বেকিং করুন। এখন দইয়ের মধ্যে ডিমের কুসুমটা মিশিয়ে মিশ্রণ তৈরি করুন। এটি চুলের গোড়ায় ভালভাবে ম্যাসাজ করে লাগান। ২ থেকে তিন ঘণ্টা পর চুলটা ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে দুইদিন এটি করলে চুল হয়ে হয়ে উঠবে মজবুত ও ঝলমলে।

২. চুলের গোঁড়ায় পুষ্টি যোগাতে একটা বাটিতে ভালভাবে পুরো ডিম ফেটে নিন। এরপর এতে ১ থেকে ২ চা চামচ মধু মেশান। এবার মিশ্রণটি চুলের গোড়ায় ভালভাবে ম্যাসাজ করে লাগান। ১ থেকে ২ ঘণ্টা পর শ্যাম্পু করে ফেলুন। সপ্তাহে একদিন করুন এ কাজটি।

৩. মজবুত চুল পেতে ডিমের সাদা অংশ ভালভাবে ফেটে তাতে অ্যালোভেরা জেল মিশিয়ে চুলে লাগাতে পারেন।

৪. চুলের রুক্ষভাব দূর করতে ডিমের সাদা অংশ ভালভাবে ফেটে তাতে নারিকেল তেল মিশিয়ে চুলের গোড়ায় লাগান। ২০ মিনিট পর শ্যাম্পু করে ফেলুন।

৫. একটা ডিম ভালভাবে ফেটে তাতে একটা কলা চটকিয়ে ভালভাবে মেশান। এরপর এতে নারিকেল তেল নিন। এখন মিশ্রনটি চুলে লাগিয়ে ২০ থেকে ২৫ মিনিট রাখুন। তারপর ভালভাবে শ্যাম্পু করে ফেলুন। এটি চুলের গোড়া মজবুত করবে, চুলের বৃদ্ধি ঘটাবে।

বিডি সংবাদ টোয়েন্টিফোর ডটকম/

প্রিন্ট করুন

বিভাগ: লাইফস্টাইল