নির্বাচিত খবর

জ্বর ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে বগুড়ার গাবতলীতে শিশুর মৃত্যু; ৩টি বাড়ি লকডাউন

বগুড়া প্রতিনিধিঃ গত বুধবার সন্ধ্যায় বগুড়া মোহাম্মাদ আলী হাসপাতালে করোনা আইসোলেশনে ইউনিটে ভর্তি থাকা ১৩ বছরের শিশুর মৃত্যু হলে ওই দিন রাঁত ১১টা ৩০মিনিট দিকে গ্রামের বাড়ীতে দাফন উপজেলা প্রশাসন ও পুলিশের উপস্থিতিতেই সম্পন্ন হয়েছে বলে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আমিনুল ইসলাম।

দাফনের সময় উপস্থিত ছিলেন বাগবাড়ী পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ মুছা মিয়া, এসআই আরিফুল, এএসআই গন, পুলিশ, ইউপি সদস্য’সহ মরহুমের পরিবার। এরপর ওই গ্রামের ৩টি বাড়ী লকডাউন করে দিয়েছেন গাবতলী ইউএনও মোছাঃ রওনক জাহান।

স্বজনরা জানান, গত সোমবার থেকে শিশুটি পায়ে ব্যথা, জ্বর ও শ্বাস কষ্টে হলে গত বুধবার সকালে শ্বাসকষ্ট বেড়ে গেলে তাঁরা দুপুরে তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করে দেয়।

মোহাম্মাদ আলী হাসপাতালের আবাসিক স্বাস্থ্য র্কমকর্তা (আরএমও) ডা. শফিক আমিন কাজল জানান, জ্বর ও শ্বাসকষ্ট থাকায় গাবতলীর ওই শিশুকে বুধবার বিকাল ৩টায় হাসপাতালের করোনা আইসোলেশনে ইউনিটে ভর্তি করা হয়।

ডা. কাজল আরো জানান, ভর্তির পর শিশুটির অবস্থা খুব একটা ভাল ছিল না। পরে অক্সিজেন দেওয়া পর কিছুটা স্থতিশীল হলেও সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা দিকে সে মারা যায়। করোনা ভাইরাসের উপসর্গ জ্বর ও শ্বাসকষ্ট থাকায় মরদেহ থেকে নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হবে।

গাবতলী ইউএনও মোছাঃ রওনক জাহান জানান, ওই গ্রামের ৩টি বাড়ী লকডাউন করে দেওয়া হয়েছে। এখনো প্রশাসনের পক্ষ থেকে নজরদারী রয়েছে।

সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (গাবতলী সার্কেল) সাবিনা ইয়াসমিন ও গাবতলী ওসি সাবের রেজা আহম্মেদ জানান, (বুধবার) ওই রাঁতে ১১টা ৩০মিঃ দিকে শিশুটির নামাজে জানাযা শেষে পুলিশের উপস্থিতিতেই দাফন সম্পন্ন করা হয়েছে।

গাবতলী উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ সারমিনা পারভীন জানান, মৃত্যু শিশুর মরদেহ থেকে নমুনা সংগ্রহ করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে পরীক্ষার রির্পোট পেলেই মৃত্যুর বিষয়টি জানা যাবে।

প্রিন্ট করুন

বিভাগ: রাজশাহী,সারাদেশ