টেস্ট ক্রিকেটকে কেন বিদায় বলছেন হাফিজ

স্পোর্টস ডেস্ক: প্রায় ২ বছর পর টেস্ট ক্রিকেটে ফিরেছিলেন মোহাম্মদ হাফিজ। কিন্তু নামের প্রতি মোটেও সুবিচার করতে পারছিলেন না। আর তাইতো টেস্ট ক্যারিয়ারকে ইতি টানার ঘোষণা দিয়েছেন পাকিস্তানের এই অলরাউন্ডার।

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে চলতি আবুধাবি টেস্টই হতে যাচ্ছে সাদা পোশাকে মোহাম্মদ হাফিজের শেষ ম্যাচ। এরইমধ্যে প্রধান নির্বাচক ইনজামাম-উল হককে জানিয়ে দিয়েছেন টেস্ট আর নয়। এবার সীমিত ওভারের ক্রিকেটেই নিজেকে ব্যস্ত রাখবেন এই অলরাউন্ডার।

আবুধাবি টেস্টের দ্বিতীয় দিন শেষে মঙ্গলবার (৪ ডিসেম্বর) ঘোষণাটা দিয়েছেন হাফিজ। জানালেন, ‘টেস্ট ক্রিকেট থেকে আমার অবসরের ঘোষণা দিতে এসেছি। এরপর থেকে আমি সীমিত ওভারের ক্রিকেটে খেলা চালিয়ে যাবো।’

সাম্প্রতিক সময়ের ম্যাচগুলোতে ব্যাট অথবা বল কোনটিতেই নিজেকে মেলে ধরতে পারছেন না হাফিজ। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে আবুধাবি টেস্টের প্রথম ইনিংসে কোন রান না করেই সাজঘরে ফেরেন তিনি। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম দুই ম্যাচের চার ইনিংসে তুলেছেন মাত্র ৩৯ রান। বল হাতে নেই একটি উইকেটও। বিদায় না নিয়ে যেন উপায় ছিল না! এরমধ্যে কেন্দ্রীয় চুক্তিতে ‘এ’ থেকে ‘বি’ ক্যাটাগরিতে নেমে গেছেন মাস তিনেক আগে! সব মিলিয়ে অফফর্মের কারণে বিদায় নিয়েছেন হাফিজ।

২০০৩ সালে করাচিতে বাংলাদেশের বিপক্ষে অভিষেক হয় হাফিজের। ৩৮ বছর বয়সী হাফিজ দেশের হয়ে এখন পর্যন্ত ৫৫ টেস্টে ১০৪ ইনিংসে ৩ হাজার ৬৪৪ রান করেছেন। সেঞ্চুরি ১০টি, হাফসেঞ্চুরি ১২টি। সর্বোচ্চ ২২৪। পাশাপাশি বল হাতে ৫৩টি উইকেটও নিয়েছেন এই অফস্পিনিং অলরাউন্ডার।

বিডি সংবাদ টোয়েন্টিফোর ডটকম/

প্রিন্ট করুন

বিভাগ: খেলাধুলা