নির্বাচিত খবর

ঢামেক ছাড়লেন ধর্ষণের শিকার সেই ঢাবি ছাত্রী

রাজধানীর কুর্মিটোলায় ধর্ষণের শিকার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) সেই ভুক্তভোগী ছাত্রীকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র দেয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৯ জানুয়ারি) দুপুর ১২টার দিকে তিনি ঢামেকের ওয়ান-স্টপ ক্রাইসিস সেন্টার (ওসিসি) ছেড়ে যান।

গত রবিবার (৫ জানুয়ারি) রাত থেকে ঢামেক হাসপাতালের ওসিসিতে চিকিৎসাধীন ছিলেন ওই ঢাবি শিক্ষার্থী।

ঢামেকের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এ কে এম নাসির উদ্দিন এক ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের এসব কথা জানান।

নাসির উদ্দিন বলেন, ‘ঢামেক ছাড়ার আগে ওই শিক্ষার্থীর বাবা লিখিতভাবে একটি চিঠিআমার কাছে জমা দিয়েছেন। সেই চিঠিতে মূলত সবাইকে ধন্যবাদ দেয়া হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা থেকে শুরু করে যারাই তার মেয়ের বিষয়ে উদ্বেগ দেখিয়েছেন, তাদের পাশে থেকেছেন, সেবা দিয়েছেন, অপরাধীকে শনাক্তে সহায়তা করেছেন তাদের সবাইকে লিখিতভাবে ধন্যবাদ জানান ওই ছাত্রীর বাবা।’

ঢামেকের পরিচালক আরও বলেন, ‘ধর্ষণের শিকার ওই ঢাবি ছাত্রী এখন শারীরিকভাবে সুস্থ আছে। এজন্যই তাকে ছাড়পত্র দেয়া হয়েছে। তবে যেকোনও সময় যেকোনও প্রয়োজনে সে ঢামেক হাসপাতালে আসতে পারবে বলেও তাকে নিশ্চিত করা হয়েছে।’

এর আগে গত রবিবার ক্যাম্পাস ক্লাস শেষে রাজধানীর শেওড়ায় বান্ধবীর বাসায় যাওয়ার পথে সন্ধ্যা ৭টার দিকে কুর্মিটোলায় পেছন থেকে মুখ চেপে ওই ছাত্রীকে তুলে নিয়ে ধর্ষণ করা হয়। এ ঘটনায় রবিবার রাত থেকেই ঢাবি ক্যাম্পাস বিক্ষোভ, মিছিল আর প্রতিবাদে উত্তাল হয়ে উঠে।

বুধবার ভোরে শেওড়া রেলক্রসিং এলাকা থেকে ধর্ষক মজনুকে গ্রেফতার করে র‌্যাব। গ্রেফতার ধর্ষক মজনুকে আজ আদালতে হাজির করে ১০ দিনের রিমান্ড চাওয়া হবে। মজনু ‘সিরিয়াল রেপিস্ট’ বলে জানিয়েছে র‌্যাব।

প্রিন্ট করুন

বিভাগ: শিক্ষাঙ্গান