নির্বাচিত খবর

তানোরে বাধাইড় গ্রামে যাওয়ার একমাত্র মাটির রাস্তায় হাটু পরিমাণ কাঁদা চরম দুর্ভোগে গ্রামবাসী

সাইদ সাজু, তানোর প্রতিনিধি : রাজশাহীর তানোর বাধাইড় ইউনিয়নের বাধাইড় গ্রামে প্রবেশের একমাত্র মাটির রাস্তায় হাটু পরিমাণ কাঁদার চরম দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন গ্রামবাসী। মাত্র ২ কিলোমিটার রাস্তা পাকা না হওয়ায় গ্রামবাসীর একমাত্র ভরসা মাটির রাস্তায় দীর্ঘদিন (সংস্কার) মাটি না ফেলায় পায়ে হেটেই চলাচল করতে হচ্ছে গ্রামবাসীকে।

মাটির ওই রাস্তাটিতে দীর্ঘদিন (সংস্কার) মাটি না ফেলায় রাস্তার মাটি দু’পার্শ্বে সরে গিয়ে সৃষ্টি হওয়া গর্তে এখন হাটু পরিমাণ কাঁদায় পরিণত হয়েছে। ফলে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে গ্রামের মানুষদেরকে।

ওই রাস্তা দিয়ে কোন যান-বাহন চলাচল করতে পারছেনা সেই সাথে গুরুর গাড়ী চলাচলও কষ্টসাধ্য হয়ে পড়েছে। ফলে বাধাইড় গ্রামের মানুষকে পায়ে হেটেই চলাচল করতে হচ্ছেন।

গ্রামবাসীর অভিযোগ, বর্ষার আগে ওই মাটির রাস্তায় মাটি ফেলে সংষ্কার করা হলে এতোটা সমস্যা হতোনা। বর্তমানে এমন অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে যে পায়ে হেটে গ্রামের যাওয়াও কষ্ট সাধ্য ব্যাপার হয়ে পড়েছে।

গ্রামের একাধীক ব্যক্তির সাথে কথা বলে জানা গেছে, টিআর, কাবিখাসহ ৪০দিনের কর্মসুচীর আওতায় গ্রামীন মাটির  সড়ক রাস্তাগুলো (সংস্কার) মাটি ফেলার কথা। কিন্তু তার বাস্তবায়ন সঠিক ভাবে হলে মাটির রাস্তা দিয়ে গ্রামের মানুষের চলাচলে এতটা সমস্যা হতোনা।

বাধাইড় ইউপি চেয়ারম্যানরা আতাউর রহমান বলেন, এই রাস্তায় মাটি ফেলা হয়েছিলো, কিন্তু পানি জমে থাকায় কাঁদায় পরিণত হয়েছে। বর্ষার পর ওই রাস্তাগুলো আবারো সংস্কার করা হবে।

তানোর উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিসার তারিকুল ইসলাম বলেন, সংশ্লিষ্ট ইউপি চেয়ারম্যানদের দেয়া তালিকা অনুযায়ী প্রকল্পের মাধ্যমে মাটির রাস্তা গুলো পর্যায়ক্রমে (সংস্কার) করার জন্য টিআর, কাবিখা ও ৪০ দিনের কর্মসুচী বাস্তবায়ন করা হয়।

তিনি বলেন, চাহিদার তুলনায় বরাদ্ধ কম হওয়ায় সবগুলো রাস্তায় মাটি ফেলা (সংস্কার) করা যায়না।

প্রিন্ট করুন

বিভাগ: অন্যান্য