তামিমের রেকর্ড ছুঁলেন সৌম্য

স্পোর্টস ডেস্ক: টেস্টে বাংলাদেশের হয়ে দ্রুততম সেঞ্চুরির রেকর্ড ছিল তামিম ইকবালের দখলে। ২০১০ সালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে লর্ডসে স্মরণীয় সেই ইনিংসের পথে ৯৪ বলে সেঞ্চুরি করেছিলেন তিনি। এবার তাকে ধরে ফেললেন সৌম্য।

রবিবার ( ৩ মার্চ) নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম টেস্টের দ্বিতীয় ইনিংসে সৌম্য সরকারের রান তখন ৯২ বলে ৯৯। হাতছানি রেকর্ডের। কিন্তু টিম সাউদির শর্ট বলটি ঠিকমতো খেলতে পারলেন না। এলো না রান। গড়া হলো না রেকর্ডও। তবে রেকর্ড ছোঁয়ার সুযোগটি হাতছাড়া করলেন না সৌম্য। পরের বলেই সিঙ্গেল নিয়ে রেকর্ড বইয়ে বসলেন তামিম ইকবালের পাশে। এখন ক্রিকেটের অভিজাত সংষ্করণে টাইগারদের হয়ে দ্রুততম সেঞ্চুরির রেকর্ডের মালিক যৌথভাবে এ দুজন।

তামিমের কীর্তি ছোঁয়ার দিনে লম্বা ইনিংসের পথে ছিলেন সৌম্য। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে হ্যামিল্টন টেস্টের চতুর্থ দিনে ৫১ বলে ৩৯ রান নিয়ে খেলতে নামেন তিনি। সূচনালগ্নেই বোল্টের এক ওভারে চার ও ছক্কা হাঁকিয়ে ৬০ বলে ফিফটি স্পর্শ করেন বাঁহাতি ব্যাটার। চোখধাঁধানো সব ক্রিকেটীয় (কাট, পুল, হুক, ড্রাইভ) ও উদ্ভাবনী শটে পরের হাফসেঞ্চুরি পূরণ করেন মাত্র ৩৪ বল।

সেঞ্চুরির পরও স্বচ্ছন্দে খেলেন সৌম্য। এগিয়ে যান লম্বা ইনিংসের পথে। তবে আচমকা খেই হারিয়ে বোল্টের শিকার হন তিনি। ফেরার আগে খেলেন ক্যারিয়ারসেরা ১৪৯ রানের বীরোচিত ইনিংস। ১৭১ বলে ২১ চার ও ৫ ছক্কায় এ ইনিংস সাজান বাঁহাতি টপঅর্ডার।

তামিম-সৌম্যর পরে বাংলাদেশের দ্রুততম সেঞ্চুরি মুমিনুল হকের। সেটিও নিউ জিল্যান্ডের বিপক্ষে। ২০১৩ সালে চট্টগ্রামে ক্যারিয়ারে প্রথম সেঞ্চুরিতে ১৮১ রানের ইনিংসের পথে মুমিনুল সেঞ্চুরি করেছিলেন ৯৮ বলে।

রেকর্ডে পরের দুটিতে নাম আবারও তামিমের। ২০১০ সালের সেই ইংল্যান্ড সফরে দ্বিতীয় টেস্টে ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে বাঁহাতি ওপেনার সেঞ্চুরি করেছিলেন ১০০ বলে। চলতি হ্যামিল্টন টেস্টের প্রথম ইনিংসে ১২৬ রানের ইনিংসের পথে তামিম আবার সেঞ্চুরি ছুঁয়েছেন ১০০ বলে।

দ্রুততম টেস্ট সেঞ্চুরির বিশ্ব রেকর্ড ব্রেন্ডন ম্যাককালামের। ২০১৬ সালে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সাবেক নিউ জিল্যান্ড অধিনায়ক সেঞ্চুরি করেছিলেন ৫৪ বলে। ক্রাইস্টচার্চে সেদিন ৭৯ বলে ১৪৫ রানের বিস্ফোরক ইনিংস খেলেছিলেন ম্যাককালাম।

একশর কম বলে সেঞ্চুরি রেকর্ড সাতবার করেছেন বিরেন্দর শেবাগ। অ্যাডাম গিলক্রিস্ট করেছেন ছয়বার। ম্যাককালাম, ক্রিস গেইল ও ডেভিড ওয়ার্নার করেছেন চার বার করে। তিন বার করে ইয়ান বোথাম, কপিল দেব, ব্রায়ান লারা ও শহিদ আফ্রিদি। সূত্র: ব্রেকিংনিউজ/

প্রিন্ট করুন

বিভাগ: খেলাধুলা