তিন দফা দাবিতে প্রাথমিক শিক্ষকদের সংবাদ সম্মেলন

বিডি সংবাদ টোয়েন্টিফোর ডটকম: প্রধান শিক্ষকের গেজেট থেকে বাদ পড়া শিক্ষকদের গেজেটে অন্তর্ভুক্ত করে নতুন গেজেট প্রকাশ করা সহ তিন দফা দাবি জানিয়েছে জাতীয়করণকৃত প্রাথমিক শিক্ষক মহাজোট।
শুক্রবার (১৮ অক্টোবর) ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাগর-রুনী মিলনায়তনে এ সংবাদ সম্মেলন করেন তারা।

তিন দফা দাবি:

১। সরকার ঘোষিত ৫০ শতাংশ বেসরকারি চাকরি গণনা করে পদোন্নতির তালিকা তৈরি করতে হবে।

২। প্রধান শিক্ষকের প্রাপ্ত টাইমস্কেল-এর ভিত্তিতে উন্নতি স্কেল বাস্তবায়ন করতে হবে।
৩। প্রধান শিক্ষকের গেজেট থেকে বাদ পড়া শিক্ষকদের গেজেট সংশোধন ক্রমে প্রধান শিক্ষকের গেজেট প্রকাশ করতে হবে।

সংবাদ সম্মেলনে জাতীয়করণকৃত প্রাথমিক শিক্ষক মহাজোটের আহ্বায়ক আমিনুল ইসলাম চৌধুরী লিখিত বক্তব্যে বলেন, প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণের প্রায় ৭ বছর অতিবাহিত হতে চলেছে। আমরা অধিগ্রহণকৃত বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক বিধিমালা ২০১৩ অনুযায়ী কর্মরত প্রধান শিক্ষকদের টাইম স্কেল, উচ্চতর বেতন স্কেল এবং সহকারী শিক্ষকদের টাইম স্কেলের সুযোগসহ কার্যকরী ৫০% এর ভিত্তিতে সকল সুযোগ-সুবিধা ভোগ করার কাজ ৮০% শেষ হয়ে যাবার এক পর্যায়ে কিছু সংখ্যক জামাত-বিএনপির থাকা কিছু প্রশাসনিক কর্মকর্তা কর্মচারী বিধিমালা ২০১৩ বিধি ৯, উপ‌বি‌ধি ১ এর ভুল ব্যাখ্যা দিয়ে আমাদের ন্যায্য পাওনা থেকে বঞ্চিত করে আসছে। যার ফলে জাতীয়করণকৃত শিক্ষকগণ হতাশ ও সংক্ষুব্ধ হয়ে পড়েছে।

তিনি আরও বলেন, এই বিধিমালাকে উপজেলা শিক্ষা অফিসারগণ কোনো প্রকার তোয়াক্কা করছে না। বিধিমালার মনগড়া ব্যাখ্যা দিয়ে অদৃশ্য শক্তিকে খুশি করার জন্য জাতীয়করণকৃত শিক্ষকদের যা ন্যায্য প্রাপ্তি ‌সেই আইন অমান্য করে চলেছেন। যার ফলে জাতীয়করণকৃত শিক্ষকদের মধ্যে হতাশা ও প্রাথমিক শিক্ষায় অস্থিরতা সৃষ্টি হয়েছে।

এসব দাবি আগামী ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯ -এর মধ্যে বাস্তবায়ন না হলে ২৬ ডিসেম্বর ঢাকায় শিক্ষক মহাসমাবেশের মাধ্যমে কঠিন কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে বলেও তিনি জানান।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের উপদেষ্টা মৃগেন্দ্র মোহন সাহা, প্রধান সমন্বয়কারী মোঃ আব্দুর রহমান বাচ্চু, সমন্বয়ক শেখ আব্দুস সালাম, মাহবুবুর রহমান, মহিউদ্দিন খন্দকার প্রমুখ।

প্রিন্ট করুন

বিভাগ: রাজধানী