দাঙ্গা লাগানোর চেষ্টা চলছে, সবাই সতর্ক থাকুন: মমতা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : নাগরিকত্ব সংশোধন আইনের বিরুদ্ধে ভারতজুড়ে চলছে সরকারবিরোধী বিক্ষোভ। পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় শুরু থেকেই বিক্ষোভকারীদের শান্ত থাকতে বলেছিলেন। এমনকি কোনও ধরনের অশান্তি কিংবা সহিংসতা তৈরি হলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ারও হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন মমতা।

এবার এনআরসি-ক্যাব বিরোধী বিক্ষোভের ধারাবাহিকতায় কিছু ধর্মীয় উগ্রপন্থি রাজনৈতিক দল পশ্চিমবঙ্গে দাঙ্গা তৈরি করার চেষ্টা চালাচ্ছে বলে জনগণকে আগাম সতর্ক করেছেন এই তৃণমূল নেত্রী। সেইসঙ্গে রাজ্যের নাগরিকদের হিংসাত্মক ও সম্প্রীতি নষ্ট হয় এমন কার্যকলাপ থেকে বিরত থাকার আহ্বান জানিয়েছেন।

এদিকে সব ধরনের অশান্তির জন্য রাজ্য সরকারকে দোষারোপ করে বিজেপির কেন্দ্রীয় সম্পাদক রাহুল সিনহা বলেছেন, ‘এনআরসি ও ক্যাব নিয়ে গোটা ভারতে যে অশান্তি, হানাহানি, বিক্ষোভ আর জ্বালাও-পোড়াও চলছে তা অব্যাহত থাকলে রাজ্যে রাষ্ট্রপতি শাসন ছাড়া অন্য কোনও পথ খোলা থাকবে না। অশান্তির জন্য তৃণমূল নেতারা দায়ী।’

অপরদিকে এক বিবৃতিতে জনগণের উদ্দেশ্যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, ‘কেউ কোনও ধরনের হিংসাত্মক কার্যকলাপে লিপ্ত হবেন না। রাজ্যজুড়ে সম্প্রীতি ও শান্তি বজায় রাখুন। রাজ্য সরকার শুরু থেকেই নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল ও এনআরসি’র বিরুদ্ধে।’

শান্তি ও সম্প্রীতি নষ্টের প্রচেষ্টা হলে রাজ্য সরকার কাউকে কোনও ধরনের ছাড় দেবে না উল্লেখ করে মমতা বলেন, ‘আমরা প্রয়োজনে আইনানুগ ব্যবস্থা নেবো। আমরা গণতান্ত্রিক ও শান্তিপূর্ণ পন্থায় নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল ও এনআরসির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে চাই।’

তিনি বলেন, ‘তবে সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে, এই সুযোগে যেন কেউ অশান্তি সৃষ্টি ও সম্প্রীতি বিনষ্ট করতে না পারে।’

প্রিন্ট করুন

বিভাগ: আন্তর্জাতিক