দিবারাত্রির ম্যাচে গোপালি বলে খেলা হয় কেন?

স্পোর্টস ডেস্ক: প্রথমবারের মতো দিবারাত্রির ম্যাচ মুখোমুখি হচ্ছে বাংলাদেশ ও ভারত। ম্যাচটির সঙ্গে আলোচনার শীর্ষে রয়েছেন গোলাপি বলও। ইতোমধ্যে ভারতীয় ক্রিকেট দল গোলাপি বলে অনুশীলনও করেছেন।

তবে কথা হল দিবারাত্রির টেস্টে গোলাপি বল দিয়ে কেন খেলতে হয়? অন্য যেকোন কালারের বলেও তো খেলা হতে পারে। কিন্তু গোলাপি বলেই কেন হহতে হবে! মূলত টেস্ট ক্রিকেট খেলা হয় লাল বলে। একদিনের ম্যাচ হয় সাদা বলে। কিন্তু দিবারাত্রির টেস্ট হলে অন্য ব্যাপার। এক্ষেত্রে গোলাপি বল বেছে নেওয়া ক্ষেত্রে যুক্তি রয়েছে।

আসলে দিনের আলোয় লাল আলোর দৃশ্যমানতা সব থেকে ভাল। আবার সন্ধ্যা বা রাতের দিকে সাদা বল ভাল দেখা যায়। তবে দিন-রাতের টেস্টে ক্রিকেটাররা সাদা পোশাক পরে নামবেন। সেক্ষেত্রে একই রঙের বল ব্যবহারে সমস্যা রয়েছে। তাই লাল ও সাদার মধ্যবর্তী রঙ হিসাবে গোলাপি বল বেছে নেওয়া হয়েছে।

সমীক্ষায় দেখা যায়, দিন রাতের টেস্টে গোলাপি বলের ভাল দেখা যায়। টেস্ট ম্যাচে একটি বলে খেলা হতে পারে ৮০ ওভার পর্যন্ত। তারপর বোলিং পক্ষের অধিনায়ক নতুন বল চেয়ে নিতে পারেন। তাই একদিনের ক্রিকেটের তুলনায় টেস্ট ক্রিকেটে বলের দৃশ্যমানতা বেশিক্ষণ বজায় রাখার ব্যাপারে নজর দেওয়া হয়। সাদা বল তাড়াতাড়ি ময়লা হয়ে যায়। তাই সাদা বলে ৮০ ওভার পর্যন্ত খেলা চালালে দৃশ্যমানতায় সমস্যা হতে পারে। সেই জন্য আইসিসি দিন-রাতের টেস্টের জন্য গোলাপি বল বেছে নিয়েছে।

অস্ট্রেলিয়ায় ২০১৫ সালে ক্রিকেট ইতিহাসে প্রথমবারের মতো গোলাপি বলে দিন-রাতের টেস্ট অনুষ্ঠিত হয়। অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ড প্রথম গোলাপি বলে দিন-রাতের টেস্ট খেলে।

এখনও পর্যন্ত মোট ১১টি দিবারাত্রির টেস্ট ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়েছে। অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড, ওয়েস্ট ইন্ডিজ, পাকিস্তান, দক্ষিণ আফ্রিকা, জিম্বাবুয়ে, ইংল্যান্ড এবং শ্রীলঙ্কা ইতোমধ্যে দিন রাতের টেস্ট খেলে ফেলেছে। বাংলাদেশ এবং ভারত অবশ্য এখনও গোলাপি বলে দিন রাতের টেস্ট খেলেনি। আগামী ২২-২৬ নভেম্বর ইডেনে প্রথমবার গোলাপি বলে টেস্ট খেলবে বাংলাদেশ-ভারত।

প্রিন্ট করুন

বিভাগ: খেলাধুলা