নির্বাচিত খবর

নরসিংদীতে অপহরণ চক্রের ৪ সদস্য আটক

জেলা প্রতিনিধি: নরসিংদী সহ দেশের বিভিন্ন স্থানে চলন্ত বাস যাত্রীদের টার্গেট করে অপহরণ ও জিম্মী করে মুক্তিপণ আদায়কারী চক্রের চার সদস্যকে আটক করেছে গোয়েন্দা পুলিশ। তাদেরকে জজ ভূইয়া গ্রুপের অফিসার হাবিবুর রহমানকে অপহরণ করে মুক্তিপণ দাবীর অভিযোগে আটক করা হয়েছে। আটকের পর বরিবার (২০ অক্টোবর) দুপুরে তাদেরকে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

আটক চারজন হলেন সদর উপজেলার মাধবদী থানার আসমান্দীরচর গ্রামের হাসেম মিয়ার ছেলে জাকির হোসেন (২৮), কাকশিয়া গ্রামের শুক্কুর আলীর ছেলে শাহজালাল (২২), পাঁচদোনা গ্রামের মনির হোসেনের ছেলে রানা মিয়া (২২) ও স্বর্পনিগর গ্রামের ইউনুস মিয়ার ছেলে আবু তাহের (২০)।

নরসিংদী জেলা গোয়েন্দা শাখার উপ-পরিদর্শক জাকারিয়া রতন জানান, ওই চারজনকে জজ ভূইয়া গ্রুপের প্রডাকশন অফিসার হাবিবুর রহমানকে অপহরণ করে মুক্তিপণ দাবীর অভিযোগে আটক করা হয়েছে। তাদেরকে সদরের বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে আটক করা হয়। এ অপহরণ চক্রটি দির্ঘদিন যাবৎ চলন্ত বাসের যাত্রিদের টার্গেট করে মুক্তিপণ আদায় করে আসছে। তাদের বিরুদ্ধে নরসিংদী সহ বিভিন্ন থানায় অস্ত্র, ছিনতাই, অপহরণ ও চুরিসহ বিভিন্ন আইনে মামলা রয়েছে।

তিনি আরও জানান, হাবিবুর রহমানকে অপহরণের ঘটনায় নরসিংদী সদর থানায় তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের হয়েছে। আটক জাকির ও রানাকে সাতদিনের রিমান্ড চেয়ে বরিবার (২০ অক্টোবর) দুপুরে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

এ মামলার বাদী অপহৃত হাবিবুর রহমান এর স্ত্রী কামরুন্নাহার খুশি জানান, তার স্বামী জজ ভূইয়া গ্রুপের সিনিয়র প্রডাকশন কর্মকর্তা। তিনি প্রতিদিনের ন্যায় গত ১৭ অক্টোবর রাতে শেখেরচর বাসস্ট্যান্ড থেকে ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক হয়ে লোকাল বাসে বাসায় ফোরার পথে ভেলানগর মোড়ে নামার সময় কৌশলে তাকে বাসের ভিতরে আটকে রাখে চক্রটি। পরে তাকে অপরহণ করে পাঁচদোনার দিকে নিয়ে যায়। এরপর স্বামীকে জীবিত ফিরিয়ে দিবে বলে ১ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে তারা। পরে বিষয়টি পুলিশ সুপার কার্যালয় এসে গোয়েন্দা সংস্থাকে জানালে এ চক্রের চার সদস্যকে আটক ও আমার স্বামীকে উদ্ধার করে গোয়েন্দা পুলিশ।

প্রিন্ট করুন

বিভাগ: ঢাকা,সারাদেশ