নীল নদ থেকে তোলা হয়েছে ৪০টি মরদেহ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: সুদানের বিরোধী দল-সংশ্লিষ্ট ডাক্তাররা বলছেন, নিরাপত্তা বাহিনী যেভাবে গণতন্ত্রপন্থী বিক্ষোভ দমন করছে তাতে গত ক’দিনে ১০০ জন নিহত হয়েছে বলে জানা গেছে।

সোমবার বিক্ষোভকারীদের একটি শিবির তুলে দেয়ার চেষ্টায় নিরস্ত্র লোকদের ওপর গুলিবর্ষণ করে অন্তর্বর্তীকালীন সামরিক সরকারের বাহিনী।

এর পর রাস্তাগুলোতে একটি আধাসামরিক বাহিনীর সদস্যরা রাস্তায় টহল দিচ্ছে এবং লোকজনকে মারধর করছে এবং গুলি চালাচ্ছে। অন্যদিকে বিক্ষোভকারীরা আরো সমাবেশের ডাক দিয়েছে।

বিরোধীদলীয় কর্মীরা বলছেন, তারা রাজধানী খার্তুমের পাশে নীল নদ থেকে ৪০ জনের লাশ উদ্ধার করেছে। সুদানের ক্ষমতাসীন ট্র্যানজিশনাল মিলিটারি কাউন্সিল বলছে, অভিযোগগুলো তারা তদন্ত করে দেখবে।

খার্তুমের বাসিন্দারা বিবিসিকে জানিয়েছেন, আরএসএফ নামে পরিচিত কুখ্যাত আধা-সামরিক বাহিনী, যার আগের নাম ছিল জানজাউইদ মিলিশিয়া, তার সদস্যরা শহরের সড়কগুলোর দখল নিয়েছে। এজন্য তারা প্রাণভয়ে আছেন।

ব্রিটেনের চ্যানেল ফোর টেলিভিশনে কাজ করেন সুদানি সাংবাদিক ইউসরা এলবাগির।

সাবেক একজন সুদানি নিরাপত্তা কর্মকর্তাকে উদ্ধৃত করে তিনি খবর দিয়েছেন, নীল নদ থেকে যাদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে তাদের হয় পেটানো হয়েছে, নয়তো গুলি করে জলে ফেলে দেয়া হয়েছে। অন্যদের কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে।

“এটা একটা পাইকারি খুন,” নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক সূত্র বলছেন।

এ নিয়ে সুদানি সামরিক বাহিনীর ঘনিষ্ঠ মিত্র দেশ সৌদি আরবের কাছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র মঙ্গলবার উদ্বেগ প্রকাশ করেছে।

এর পর সৌদি সরকার বুধবার “নানাবিধ রাজনৈতিক শক্তি”র সাথে আলোচনা আবার শুরু করার জন্য সুদানের প্রতি আহ্বান জানায়।সূত্র: ব্রেকিংনিউজ/

প্রিন্ট করুন

বিভাগ: আন্তর্জাতিক