‘পাকিস্তানি ক্রিকেটাররা মাঠে নামাজ পরলে আপত্তি করে না আইসিসি’

স্পোর্টস ডেস্ক: মোহালিতে ২০১১ সালে মাঠেই নামাজ পড়েছিলেন পাকিস্তানের জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা। ওই সময় বিষয়টি নিয়ে ব্যাপক তোলপাড় হয়েছিল। মাঠে নামাজ পড়ার ছবি গোটা ক্রিকেট দুনিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায়।

এবার ভাইরাল হলো ভারতের বিশ্বকাপ জয়ী অধিনায়ক মাহেন্দ্র সিং ধোনির সেনা প্রতীক খচিত উইকেটকিপিং গ্লাভস। যদিও আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল-আইসিসির আপত্তির মুখে এরইমধ্যে গ্লাভস পরিবর্তন করতে বাধ্য হয়েছেন ধোনি।

ক্রিকেটের সর্বোচ্চ এই নিয়ন্ত্রক সংস্থাটির নিয়ম অনুযায়ী, আইসিসির আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টে কোনও খেলোয়াড় তাদের পোশাক কিংবা সরঞ্জামে এমন কোনও বার্তা বহন করতে পারবেন না যা ব্যবসায়িক, রাজনীতি, ধর্ম কিংবা জাতিগত অনুভূতিতে আঘাত দেয়।

আইসিসির সংবিধান অনুযায়ী, ৮ বছর আগে মোহালিতে পাকিস্তান দলের মাঠে নামাজ পড়াটাও সেক্ষেত্রে ধর্মীয় বার্তা বহন করে। কিন্তু বিষয়টি ব্যাপক আলোচনায় এলেও এ নিয়ে তখন আইসিসি আপত্তি তুলেনি।

এবার বিষয়টিকে আরেকটু উস্কে দিলেন পাকিস্তানি লেখক তারেক ফতেহ। তিনি বলেন, ‘পাকিস্তানের ক্রিকেটাররা মাঠে নামাজ পড়লে আইসিসি আপত্তি জানায় না। কিন্তু ধোনি সেনার প্রতীক আঁকা উইকেটকিপিং গ্লাভস পরলে আপত্তি উঠে!’

প্রিন্ট করুন

বিভাগ: খেলাধুলা