প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে মুক্তিযোদ্ধাকে হত্যা করল স্ত্রী-ছেলে

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি: সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজার উপজেলায় প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে এক মুক্তিযোদ্ধাকে তার স্ত্রী ও ছেলে মিলে হত্যা করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। রবিবার (৩ নভেম্বর) সকালে উপজেলার লক্ষীপুর ইউনিয়নের সুলতানপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে।

নিহত মুক্তিযোদ্ধার নাম আবদুল বারীক (৭৫)। তিনি সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজার উপজেলার লক্ষীপুর ইউনিয়নের সুলতানপুর গ্রামের বাসিন্দা। এ ঘটনায় তার স্ত্রী আছিয়া খাতুন (৬০) ও ছেলে মিলন মিয়াকে (১৮) গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

দোয়ারাবাজার থানার ওসি আবুল হাসেম জানান, সুলতানপুর গ্রামের কালাশাহ, রকিব ও হান্নানের সঙ্গে মুক্তিযোদ্ধা আবদুল বারীকের জমিজমা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছে। এর আগে ২০১৭ সালে আবদুল বারীক ও কালাশাহ পক্ষের সংঘর্ষে কালাশাহের মেয়ের জামাই নিহত হয়। ওই ঘটনায় হওয়া মামলায় আবদুল বারীকের ছেলে সাবাজ আলী জেলে রয়েছেন। এরই জেরে প্রতিপক্ষকে ফাঁসানোর জন্য স্ত্রী ও ছেলে মিলে আবদুল বারীককে হত্যা করেছেন বলে প্রাথমিকভাবে নিশ্চিত হওয়া গেছে।

তিনি আরও জানান, আবদুল বারীকের মাথায় শাবলের কয়েকটি আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তার ঘর থেকে রক্তমাখা লোহার শাবল উদ্ধার করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য লাশ সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে পাঠানো হবে।

প্রিন্ট করুন

বিভাগ: ঢাকা,সারাদেশ