বগুড়ার শেরপুরে ডেঙ্গু প্রতিরোধে জেলা পুলিশের সপ্তাহ ব্যাপী জনসচেতনতা কর্মসূচি

শেরপুর(বগুড়া)প্রতিনিধি: এডিসমশা ও ডেঙ্গু রোগের বিস্তার নিয়ে সারাদেশ যখন তোলপাড়, তখন ‘ডেঙ্গু প্রতিরোধে এগিয়ে আসুন’ শ্লোগান নিয়ে জনসচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষে রাস্তায় নেমেছেন বগুড়া জেলা পুলিশ। সপ্তাহ ব্যাপী ডেঙ্গু প্রতিরোধ অভিয়ানের অংশ হিসেবে ১৬ আগস্ট শুক্রবার বেলায় ১১টায় শেরপুরের ধুনটমোড় এলাকায় মশক নিধন কর্মসূচির উদ্বোধন করেন বগুড়া-৫ শেরপুর-ধুনট আসনের সংসদ সদস্য বীরমুক্তিযোদ্ধা আলহাজ¦ মো. হাবিবর রহমান।
জেলা পুলিশ সুপার আলী আশরাফ ভূঞার সভাপতিত্বে ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শেরপুর সার্কেল মো. গাজিউর রহমানের সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন শেরপুর পৌরসভার মেয়র আলহাজ¦ মো. আব্দুস সাত্তার। এসময় বগুড়ার পুলিশ সুপার (ইনসার্ভিস) মো. শফিকুল ইসলাম, এএসপি (হেডকোয়ার্টার) তাপস কুমার পাল, শেরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মো. হুমায়ুন কবীর, পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) বুলবুল ইসলাম, উপজেলা ভাইস-চেয়ারম্যান আলহাজ¦ শাহ জামাল সিরাজী, মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান খাদিজা বেগম, উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি আলহাজ¦ মুন্সি সাইফুল বারী ডাবলু, সাধারণ সম্পাদক আহসান হাবিব আম্বিয়া, সাংগঠনিক সম্পাদক বদরুল ইসলাম পোদ্দার ববি, পৌর প্যানেল মেয়র নাজমুল আলম খোকন প্রমুখসহ পৌরসভার সকল কাউন্সিলর, শিক্ষক, স্থানীয় গণমাধ্যমকর্মী ও বিভিন্ন এলাকার সচেতন লোকজন উপস্থিত ছিলেন।
এ সময় জনসচেতনতা বাড়াতে ডেঙ্গু প্রতিরোধে এগিয়ে আসুন শিরোনামে লিফলেট বিতরণ করা হয়। এ কর্মসুচীতে শেরপুর পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ডে সংশ্লিস্ট কাউন্সিলরের নেতৃত্বে ‘৩০টি ফগার মেশিন ও স্প্রে মেশিনের মাধ্যমে মসক নিধনের প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা হয়।
অপরদিকে শেরপুর পৌরসভার বিভিন্ন ওয়ার্ডে ময়লা আবর্জনা ও ড্রেনে এডিস মশার লার্ভা নিধনের জন্য জরুরী ভিত্তিতে সরকারি বরাদ্দ আসলেও পৌর কর্তৃপক্ষের পক্ষ থেকে কোন উদ্যোগ গ্রহন না করায় পৌর নাগরিকদের মাঝে নানা প্রশ্নের উদয় হচ্ছে। তবে এ বিষয়ে জানতে চাইলে পৌর মেয়র আব্দুস সাত্তার কোন মন্তব্য করতে রাজি হননি।

প্রিন্ট করুন

বিভাগ: রাজশাহী,সারাদেশ