বগুড়ার শেরপুরে ৫ম শ্রেণির ছাত্রিকে ধর্ষণ ॥ ধর্ষক আটক

শেরপুর (বগুড়া) প্রতিনিধি : বগুড়ার শেরপুরের রণবীরবালা ঘাটপাড় এলাকায় ৫ম শ্রেণির ছাত্রিকে ধর্ষণের ঘটনায় শেরপুর থানা পুলিশ গতকাল রোববার বিকালে রণবীরবালা ঘাটপাড় এলাকার মসজিদের মোয়াজ্জিন ও স্থানিয় বাজারের নৈশ্য প্রহরী ফটিক হোসেনের (৪৫) আটক করেছে।
অভিযোগে জানা গেছে, উপজেলার গাড়িদহ মডেল ইউনিয়নের রণবীরবালা গ্রামের মৃত ইমদাদ হোসেনের ছেলে রণবীরবালা ঘাটপাড় এলাকার জামে মসজিদের মোয়াজ্জিন ও স্থানিয় বাজারের নৈশ্য প্রহরী ফটিক হোসেন গত চার মাস আগে একই গ্রামের সুনীল চন্দ্র দাসের মেয়ে কাফুড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৫ম শ্রেণির ছাত্রিকে বাড়িতে ডেকে এনে ধর্ষণ করে। ধর্ষণের একপর্যায় ওই ছাত্রি গর্ভবতী হয়ে পরে। পরিবারের লোকজন বিষয়টি বুঝতে পেরে এলাকার মাতুব্বরদের কাছে বিচার চায়। বিচার না পেয়ে অসহায় পরিবারটি নিরুপায় হয়ে শেরপুর অজ্ঞাত এক ডাক্তারের কাছে নিয়ে গেলে তিনি গর্ভপাত করান। তারপরও ওই পরিবারটি বিচারের আশায় মাতুব্বরদের দ্বারে দ্বারে ঘুরে বিচার না পেয়ে গতকাল রোববার বিকালে ধর্ষিতার মা মিনতী রানী বাদি হয়ে শেরপুর থানায় ফটিকের বিরুদ্ধে একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করার পর পুলিশ তাকে আটক করেন।
এ ব্যাপারে শেরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মো. হুমায়ুন কবীর বলেন, ধর্ষনের অভিযোগ পেয়ে ধর্ষক ফটিককে আটক করে থানায় আনা হয়েছে।

প্রিন্ট করুন

বিভাগ: রাজশাহী,সারাদেশ