বিপিএলে মাঝারি মানের সংগ্রহ ঢাকার

স্পোর্টস ডেস্ক : বঙ্গবন্ধু বিপিএলে সবচেয়ে শক্তিশালী ঢাকা প্লাটুন। তামিম ইকবাল-এনামুল হক বিজয়, থিসারা পেরেরা-শহীদ আফ্রিদিদের নিয়ে গড়া দলটিকে যে কেউ শক্তিশালী বলতে বাধ্য। কিন্তু নিজেদের প্রথম ম্যাচে তারকাবহুল দলটি বিপর্যয়ের মুখে পড়লো রাজশাহী রয়্যালসের বিপক্ষে।

উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান এনামুল হক বিজয় ব্যতীত আর কেউই পাননি রানের দেখা। ব্যর্থতার বৃত্তে আটকা পড়েছেন তামিম ইকবাল, থিসারা পেরেরা, শহীদ আফ্রিদিরা। যার ফলে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে ১৩৪ রানের বেশি করতে পারেনি ঢাকা। আসরের প্রথম জয় পেতে রাজশাহীকে করতে হবে ১৩৫ রান।

মিরপুর শেরে বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস জিতে মাশরাফি-তামিমদের আগে ব্যাট করার জন্য আমন্ত্রণ জানান রাজশাহী অধিনায়ক আন্দ্রে রাসেল। ব্যাট করতে নেমে দলীয় ১৫ রানের মাথায় আউট হয়ে যান তামিম ইকবাল।

ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারে আউট হওয়ার আগে ৪ বল খেলে একটি বাউন্ডারি মেরে মোট ৫ রান করেন তামিম। রাজশাহীর পেসার আবু জায়েদ রাহীর করা সে ওভারের পঞ্চম বলে আফিফ হোসেন ধ্রুবর হাতে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফিরে যান তামিম ইকবাল।

উইকেটে থিতু হওয়ার চেষ্টা করেও পারেননি লরি ইভানস। দলীয় ৩৯ রানের মাথায় তিনি ফেরেন ১৪ বলে ১৩ রান করে। তৃতীয় উইকেটে চাপ সামাল দেয়ার চেষ্টায় জুটি গড়েছিলেন জাকের আলি অনিক ও এনামুল হক বিজয়।

দুজন ভালোই এগুচ্ছিলেন। কিন্তু ১২তম ওভারের দ্বিতীয় বলে রানআউটের শিকার হয়ে জাকের ফিরতে মোড়ক লাগে ঢাকা ইনিংসে। চোখের পলকে ২ উইকেটে ৭৮ থেকে ৬ উইকেটে ৮৩ রানের দলে পরিণত হয় তারা।

শেষের দিকে মাশরাফির ঝড়ো ব্যাটে ১৩৪ রানে সংগ্রহ করতে পায় দলটি। রাজশাহীর পক্ষে বল হাতে ৪৩ রান খরচায় ২ উইকেট নিয়েছেন আবু জায়েদ রাহী। এছাড়া তাইজুল ইসলাম, অলক কাপালি, ফরহাদ রেজা ও রবি বোপারার প্রত্যেকে নিয়েছেন ১টি করে উইকেট।

প্রিন্ট করুন

বিভাগ: খেলাধুলা