ভারত কাঁপিয়ে ঢাকায় জাহানারা

স্পোর্টস ডেস্ক: ভারতের মাটিতে ঝড় তুলেছেন বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দলের সেরা পেসার জাহানারা আলম। প্রথম বাংলাদেশি নারী ক্রিকেটার হিসেবে ‘মেয়েদের আইপিএল’ খ্যাত ভারতের উইমেন্স টি-টোয়েন্টি ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগের ফাইনালে দুর্দান্ত বল করেছেন তিনি। তার বোলিং তোপের পর দল জিততে না পারলেও জাহানারা ছড়িয়েছেন পেস বোলিংয়ের সৌরভ।

অসাধারণ বোলিংয়ে ভারত মাতিয়ে ঢাকায় ফিরেছেন পেসার জাহানারা আলম। শনিবার রাতে টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলে রবিবার (১২ মে) সকালেই দেশের পথে রওনা দেন। সকাল সাতটার ফ্লাইটে জয়পুর থেকে কলকাতা হয়ে তার ঢাকা পৌঁছাতে বেজে যায় বিকাল তিনটা।

ঢাকায় পৌঁছে জাহানারা বললেন, ‘খুব ভালো লাগছে এমন পারফরম্যান্স করতে পেরে। দল জিতলে বাড়তি আনন্দ যোগ হতো। ৮ বছর ধরে বাংলাদেশের হয়ে খেলছি। এবার নতুন একটা মঞ্চে খেললাম। আশা করি আগামীবারও খেলব। বড় মঞ্চ থেকে অনেক অভিজ্ঞতা নিয়ে ফিরেছি। যা সামনে খুব কাজে দেবে।’

টাইগ্রেস পেসারের দ্রুত ফেরার কারণ ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ। সোমবার সকাল ৯টায় বিকেএসপিতে মোহামেডানের বিপক্ষে ম্যাচ খেলতে নামবেন আবাহনীর এ ক্রিকেটার। সে কারণে তড়িঘড়ি করেই রওনা হতে হয় দেশের পথে।

প্রথম বাংলাদেশি নারী ক্রিকেটার হিসেবে বিদেশি লিগে খেলার সুযোগ খুব ভালভাবেই কাজে লাগিয়েছেন জাহানারা। জয়পুরে ভেলোসিটির হয়ে প্রথম ম্যাচে ভালো করতে না পারলেও শনিবার ফাইনালে করেন দুর্দান্ত বোলিং। প্রতিপক্ষ সুপারনোভাসের দুই বিদেশি ব্যাটারের স্টাম্প উপরে ফেলেন গতির সঙ্গে সুইংয়ের মিশেলে।

জাহানারা ৪ ওভারে ২১ রানে দুই উইকেট নিলেও ভেলোসিটি শেষ পর্যন্ত জিততে পারেনি। তবে কিউই ব্যাটার নাটালি শিভারকে করা তার বোল্ড আউটটি নিয়ে হচ্ছে বেশ হৈচৈ। টুর্নামেন্টের সেরা ডেলিভারির তকমা পাচ্ছে যেটি।

শনিবার রোজা রেখে হালকা ইফতার করেই ম্যাচ খেলতে নেমে যান জাহানারা। পরে অসাধারণ বোলিংয়ে ছাপ রাখেন সক্ষমতার। মাঠে সব আনুষ্ঠানিকতা শেষে টিম হোটেলে পৌঁছাতেই বেজে যায় রাত ১টা। নির্ঘুম রাত কাটিয়ে প্রত্যুষেই ধরেন দেশের বিমান।সূত্র: ব্রেকিংনিউজ/

প্রিন্ট করুন

বিভাগ: খেলাধুলা