ভারত সফরে সৌদি যুবরাজ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: পাকিস্তান সফর থেকে সৌদি আরবে ফিরে আবার ভারত গিয়েছেন সৌদি আরবের ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমান। মঙ্গলবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লিতে পৌঁছান তিনি।

বিমানবন্দরে তাঁকে উষ্ণ অভ্যর্থনা জানান ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। উড়োজাহাজ থেকে নামতেই মোহাম্মদ বিন সালমানকে নিজের চওড়া বুকে জড়িয়ে ধরেন মোদি। এসময় মোদির পিঠ চাপড়ে দেন সৌদি যুবরাজ।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি জানিয়েছে, এই সফরে দুই নেতার মধ্যে বাণিজ্য ও সন্ত্রাস মোকাবেলা ইস্যুতে গুরুত্বপূর্ণ আলোচনা হবে। বিন সালমানের সাথে রয়েছেন গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রী ও ব্যবসায়ীদের একটি দল। বুধবার (২০ ফেব্রুয়ারি) রাতেই ভারত ছাড়বেন মোহাম্মদ।

ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে এক টুইটে বলা হয়, দুই দেশের মধ্যকার দ্বিপক্ষীয় সম্পর্কের একটি নতুন অধ্যায় শুরু হলো। প্রটোকল ভেঙে প্রধানমন্ত্রী মোদি নিজে বিমানবন্দরে হাজির হয়ে সৌদি যুবরাজকে অভ্যর্থনা জানান। এটিই যুবরাজের প্রথম ভারত সফর। প্রধানমন্ত্রী মোদির সঙ্গে যুবরাজের বৈঠকে বাণিজ্য থেকে শুরু করে প্রতিরক্ষা, নিরাপত্তা, সন্ত্রাসবিরোধী অভিযান ও নবায়নযোগ্য জ্বালানির ব্যাপারে আলোচনা হওয়ার কথা রয়েছে।

এক টুইট বার্তায় মোদি বলেন, ‘সৌদি যুবরাজকে আনন্দের সঙ্গে স্বাগত জানিয়েছি আমরা।’

প্রসঙ্গত মঙ্গলবারই দুই দিনের পাকিস্তান সফর শেষে দেশে ফিরেছেন এমবিএস। এদিনই তিনি আবার ভারতের উদ্দেশ্যে রওনা দেন। এশিয়া অঞ্চলে এই সফরে তার চীনেও যাওয়ার কথা রয়েছে।

পাকিস্তান সফর শেষে সেখান থেকেই দিল্লিতে যাওয়ার কথা ছিল তার। কিন্তু ‘শেষ মুহূর্তে সরাসরি পাকিস্তান থেকে দিল্লি সফর না করার সিদ্ধান্ত নেন তিনি। ধারণা করা হচ্ছে, কাশ্মির ইস্যুতে ভারতীয়দের সংবেদনশীলতা উপলব্ধি এবং দিল্লির কৌশলগত তাৎপর্য অনুধাবন করেই তিনি সরাসরি পাকিস্তান থেকে দিল্লি সফর বাতিল করে দেশে ফিরে গেছেন। এরপর আবার ভারতের উদ্দেশ্যে বিমানে চেপেছেন।

বুধবার ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সাথে তার গুরুত্বপূর্ণ বৈঠক অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা। এরপর সেখান থেকে যুবরাজের চীনে সফর করার কথা। চীন সফরের মাধ্যমেই তার এশিয়া সফর শেষ হবে। সূত্র: ব্রেকিংনিউজ/

প্রিন্ট করুন

বিভাগ: আন্তর্জাতিক