মাঝে মাঝে গোসল না করা স্বাস্থ্যের পক্ষে উপকারী!

লাইফস্টাইল ডেস্ক: শীতকাল এলে অনেকেই গোসল করতে চান না। গোসল করতে গেলেও ঠান্ডার ভয়ে গায়ে পানি না ঢেলেই বেরিয়ে আসেন অনেকে। শীতকালে এই অনিয়মিত গোসলের বিষয়ে অনেকেই খোলামেলা আলোচনা করেন না, ‍যদি কেউ তা নিয়ে ঠাট্টা করে! তবে চিন্তার কারণ নেই, গবেষকরা বলছেন মাঝে মাঝে গোসল না করা স্বাস্থ্যের জন্য ভাল। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বোস্টন ইউনিভার্সিটির একদল গবেষক এমন মত দিয়েছেন।

এই মার্কিন গবেষকদের মতে, প্রতিদিন গোসল করলে ত্বকের বেশ ক্ষতি হতে পারে। মূলত শরীরের ময়লা, ঘাম ধুয়ে ফেলার জন্যই আমরা গোসল করে থাকি। তবে বিশেষজ্ঞদের দাবি, শরীরের ময়লা, ঘাম ধোয়ার সঙ্গে গোসলের কোনও সম্পর্ক নেই।

একাধিক মার্কিন চর্মরোগ বিশেষজ্ঞদের মতে, প্রতিদিন গোসল করাটা অনেকটাই একটা সামাজিক রীতি বা অভ্যাস। এ ক্ষেত্রে তাদের যুক্তি হল, শরীরের নিজস্ব ক্রিয়াই ত্বককে ময়লা হওয়ার হাত থেকে রক্ষা করে। তবে তাই বলে গোসল একেবারে বন্ধ করার পক্ষেও কোনও যুক্তি দেখাননি তারা।

বোস্টন ইউনিভার্সিটির গবেষকদের মতে, শরীরে এমন কিছু ভাল ব্যাকটেরিয়া জন্মায় যা টক্সিনের হাত থেকে ত্বককে রক্ষা করে। প্রতিদিন গোসলের ফলে ভাল ব্যাকটেরিয়াগুলো শরীর থেকে ধুয়ে বেরিয়ে যায়। আর তাতে শরীরেরই ক্ষতি হয়। এ ছাড়াও নিয়মিত গোসলের ফলে নখের খুবই ক্ষতি হয়। মার্কিন গবেষকদের মতে, গোসলের সময় নখ অতিরিক্ত পানি শোষণ করে ধীরে ধীরে দুর্বল হয়ে পড়ে।

সুতরাং, অনিয়মিত গোসল আসলে স্বাস্থ্যকর। তাই ঠান্ডায় দু’-একদিন গোসল না করলে তাতে লজ্জা বা সংকোচের কিছু নেই!

প্রিন্ট করুন

বিভাগ: লাইফস্টাইল