মাদক ব্যবসায়িদের স্থান রামুতে হবে না- ওসি আবুল খায়ের

রামু প্রতিনিধি : রামু থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আবুল খায়ের বলেছেন, মাদক ব্যবসায়ি ও অপহরণকারিদের স্থান রামুতে হবে না।
মাদক ও অপরাধ নির্মূলে সরকার কঠোর হয়েছে। মাদক ব্যবসায়ি ও অপহরণকারি চক্রকে গ্রেফতারে পুলিশী অভিযান জোরদার করা হয়েছে। আইনশৃংখলা বাহিনী ব্যবস্থা নেয়ার আগেই অপহরণকারি ও মাদক ব্যবসায়িদের ভালো পথে ফিরে আসতে হবে। নয়তো কঠিনতর পরিস্থিতির মুখোমুখি হতে হবে।
তিনি শুক্রবার (২৫ অক্টোবর) বিকালে রামুর জোয়ারিয়ানালা মাদ্রাসা গেইট স্টেশনে ‘জোয়ারিয়ানালা স্বেচ্ছাসেবক টিম’ আয়োজিত বিশাল মাদক বিরোধী সমাবেশ এবং ফ্রি রক্তের গ্রুপ নির্ণয় ক্যাম্পে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।
ওসি আবুল খায়ের আরো বলেন, পর্যটন রাজধানী কক্সবাজারের অপরূপ স্থান রম্যভূমি রামু। এখানকার পাহাড়গুলো ¯্রষ্টার অপরূপ সৃষ্টির পরিচয় তুলে ধরেছে। অথচ এসব পাহাড়েই দুষ্কৃতিকারিরা নিরীহ, হতদরিদ্র লোকজনকে তুলে নিয়ে জিম্মি করে অর্থ আদায়ের মতো ঘৃণ্য কর্মকান্ড চালায়। তিনি এসব অপকর্মে জড়িতদের হুশিয়ারি দিয়ে বলেন, এ ধরনের কর্মকান্ডে জড়িতদের বিরুদ্ধে পুলিশ সজাগ হয়েছে। ইতিমধ্যে অভিযান চালানো হয়েছে। ভবিষ্যতে দুষ্কৃতিকারিদের নির্মুলে আরো বড় ধরনের অভিযান চালানো হবে। তিনি অপরাধিদের উদ্দেশ্যে বলেন, অযথা নিরীহ লোকজনকে হয়রানি করে নিজেদের বিপদ ডেকে আনবেন না। এখন রিক্সা চালিয়েও মাসে ১৫ হাজার টাকা আয় করা সম্ভব। তাই হালাল কাজ করেই নিজের পরিবারের জীবিকা নির্বাহ করতে হবে।
ওসি আবুল খায়ের ‘জোয়ারিয়ানালা স্বেচ্ছাসেবক টিম’ এর প্রশংসা করে বলেন, পুলিশ যে কাজ করার কথা, তা এ সংগঠনের সদস্যরা করেছে। এরা সমাজে দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে। এদের কাছ থেকে সমাজের সবাইকে শিক্ষা নিতে হবে। তিনি বাল্য বিয়ে, ধর্মীয় বিষয় নিয়ে গুজব ছড়ানো প্রতিরোধে সর্বস্তুরের জনতাকে সচেতন হওয়ার আহবান জানান।
জোয়ারিযানালা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কামাল শামসুদ্দিন আহমেদ প্রিন্স এর সভাপতিত্বে সমাবেশে প্রধান বক্তা ছিলেন, রামু থানার ওসি (তদন্ত) এসএম মিজানুর রহমান। এতে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, জোয়ারিয়ানালা ইউপি সদস্য জসিমুল ইসলাম, যুবলীগ নেতা ও ব্যবসায়ি আনছারুল আলম, জেলা ছাত্রলীগ নেতা সাদ্দাম হোসেন প্রমূখ। পল্লী চিকিৎসক ডা. সোহেল সাঈদ এর সঞ্চালনায় সমাবেশে স্বাগত বক্তব্য রাখেন, ‘জোয়ারিয়ানালা স্বেচ্ছাসেবক টিম’ এর এডমিন মকছুদুর রহমান অভি।
সমাবেশে কক্সবাজার সিটি কলেজের প্রভাষক আবদুল্লাহ আল নোমান, সাংবাদিক সোয়েব সাঈদ, যুবলীগ নেতা জহির আহমদ, সাবেক মেম্বার নুর মোহাম্মদ সহ গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন। সভায় ‘জোয়ারিয়ানালা স্বেচ্ছাসেবক টিম’ এর এডমিন নুরুল আলম, বারেক, অভি, রহিম ও তৌহিদকে পরিচয় করিয়ে দেয়া হয়। শুরুতে পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত করেন, হাফেজ আজিজুল হক।
‘জোয়ারিয়ানালা স্বেচ্ছাসেবক টিম’ এর এডমিন মকছুদুর রহমান অভি বলেন, জোয়ারিয়ানালা স্বেচ্ছাসেবক টিম’ এর উল্লেখযোগ্য লক্ষ্য ও উদ্দেশ্যসমূহ হলো, গরীব, মেধাবি, এতিম, প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের শিক্ষা অর্জনের সহায়তা করা, রক্তাদান, দূর্যোগে ক্ষতিগ্রস্তদের সহায়তা প্রদান, শীতার্থদের শীতবস্ত্র বিতরণ, পরিবেশ সুরক্ষা ও দূষনরোধ, বনায়ন, মাদক ও বাল্যবিয়ে প্রতিরোধ, বেওয়ারিশ মৃতদেহ দাফন সহ বিভিন্ন সামাজিক, শিক্ষা ও জনকল্যাণমূলক কাজ অব্যাহত রাখা।
এরআগে দুপুর ২ টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত সমাবেশস্থলে ফ্রি রক্তের গ্রুপ নির্ণয় ক্যাম্প অনুষ্ঠিত হয়। ‘জোয়ারিয়ানালা স্বেচ্ছাসেবক টিম’ এর উদ্যোগে এ ক্যাম্পে সার্বিক সহযোগিতায় ছিলো, কক্সবাজার ব্লাড ডোনার’স সোসাইটি। সমাবেশ শেষে একটি মাদক বিরোধী র‌্যালী মাদ্রাসা গেইট ও জোয়ারিয়ানালা বাজার প্রদক্ষিণ করে। অতিথিবৃন্দ এ র‌্যালীতে নেতৃত্ব দেন। মাদক বিরোধী র‌্যালী, সমাবেশ ও ফ্রি রক্তের গ্রুপ নির্ণয় কর্মসূচিতে সার্বিক তত্ত্বাবধানে ছিলেন ‘জোয়ারিয়ানালা স্বেচ্ছাসেবক টিম’ এর শতাধিক সদস্য।

 

রামুতে মডার্ণ মেডিকেল এন্ড ডায়াগনষ্টিক সেন্টার উদ্বোধন

রামু প্রতিনিধি : গ্রামের গরীব মানুষের ব্যয় সাধ্যের মধ্যেই চিকিৎসা সেবা দিতে হয়। স্বাস্থ্য সেবার প্রধান একটি সমস্যা ডায়াগনস্টিক ব্যবস্থা। ডায়াগনস্টিক সেবা যেন সাধারণ মানুষের ক্রয় ক্ষমতার ভিতরে থাকে, গরীব মানুষ যেন সহজেই চিকিৎসা সেবা পায় নজরদারি থাকতে হবে। শুক্রবার (২৫ অক্টোবর) বিকাল ৫টায় রামু মডার্ণ মেডিকেল এন্ড ডায়াগনষ্টিক সেন্টার উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় রামু উপজেলা পরিষদচেয়ারম্যান সোহেল সরওয়ার কাজল এ কথা বলেন। বি এম এ কক্সবাজার জেলার সাধারণ সম্পাদক ও রামু মডার্ণ মেডিকেল এন্ড ডায়াগনষ্টিক সেন্টারে পরিচালক ডা. মো. মাহাবুবুর রহমান উদ্বোধন অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন। বিশেষ অতিথি’র বক্তৃতা করেন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার প্রণয় চাকমা, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার ডা. মশিউর রহমান, সুশাসনের জন্য নাগরিক ‘সুজন’ রামু’র সভাপতি মাষ্টার মোহাম্মদ আলম, জেলা আইনজীবি সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক এড. হোছাইন আহমদ আনছারী, উপজেলা স্যানিটারি ইন্সপেক্টর মাহতাব উদ্দিন প্রমুখ।রামু মডার্ণ মেডিকেল এন্ড ডায়াগনষ্টিক সেন্টারে পরিচালক অধ্যাপক ছৈয়দ আকবরের স্বাগত বক্তব্যে অনুষ্ঠিত উদ্বোধন অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তৃতা করেন, পরিচালক সমন্বয়কারী রাশেদুল আলম ও গোলাম মওলা। শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলওয়াত করেন, মৌলানা মো. আবদুল্লাহ। রামু মডার্ণ মেডিকেল এন্ড ডায়াগনষ্টিক সেন্টারের পরিচালকঅধ্যাপক ছৈয়দ আকবর জানান, এই হাসপাতালে সার্বক্ষনিক বিশেষজ্ঞ ডাক্তার চিকিৎসা সেবা দিবেন। অভিজ্ঞ মেডিকেল অফিসার দ্বারা আউটডোর রোগীর সেবা প্রদান, ফার্মেসী সেবা চালু, অত্যাধুনিক ডিজিটাল র‌্যাব, ২০০ এম. এ ডিজিটাল এক্স-রে, ফোর ডি কালার আল্ট্রাসনোগ্রাফী, বায়ো কেমিষ্ট্রি এনালাইজার, ইসিজি, হেমোটোলজি এনালাইজার, বিদেশ গমন ইচ্ছুক যাত্রীদের মেডিকেল চেকআপ ও সুদক্ষ নার্সিং সেবা পাবে সাধারণ মানুষেরা।তিনি বলেন, বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় গ্রামাঞ্চলে আধুনিক চিকিৎসা সুবিধা দিতেই রামু মডার্ণ মেডিকেল এন্ড ডায়াগনষ্টিক সেন্টারের যাত্রা শুরু হয়েছে। গ্রামের মানুষের দোড়গোড়ায় স্বাস্থ্য সেবা পৌঁছে দিতে আমরা বদ্ধ পরিকর। আমরা সর্বস্তরের সহযোগিতা চাই।

রামু কলেজে ৫ শতাধিক শিক্ষার্থীর বিনামূল্যে রক্তের গ্রুপ নির্ণয়

রামু প্রতিনিধি : রামু সরকারি কলেজে ৫ শতাধিক শিক্ষার্থীর বিনামূল্যে রক্তের গ্রুপ নির্ণয় করেছে রামুর অন্যতম স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন রামু ব্লাড ডোনার’স এসোসিয়েশন।
বৃহস্পতিবার (২৪ অক্টোবর) রক্তের গ্রুপ নির্ণয় কর্মসূচিটি সকাল ৯টা থেকে শুরু হয়। কার্যক্রম উদ্বোধন করেন রামু সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ আব্দুল হক।
তিনি বলেন, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এই ধরনের কর্মসূচি খুবই প্রয়োজন। ছাত্র-ছাত্রীদের বিভিন্ন পর্যায়ের, বিভিন্ন সময় রক্তের গ্রুপ জানার প্রয়োজন রয়েছে। রামু ব্লাড ডোনার’স এসোসিয়েশনের উদ্যোগকে আমি স্বাগত জানাই।
এতে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- জিকু চৌধুরি ও এডভোকেট তানভির শাহ্।
কর্মসূচি চলে সকাল সাড়ে ৯টা থেকে বেলা ১টা পর্যন্ত।
রক্ত দিতে পেরে প্রতিক্রিয়ায় একাদশ শ্রেণীর ছাত্র মোঃ শেফায়াত উল্লাহ বলেন, জীবনের প্রথমবার আমি রক্তের গ্রুপ নির্ণয় করেছি। বিনা মূল্যে আমার রক্তের গ্রুপ জানতে পেরে আমি অত্যন্ত আনন্দিত। মানবতার প্রয়োজনে আমি রক্ত দিতে প্রস্তুত।
কর্মসূচির সমন্বয় করেন রামু ব্লাড ডোনার’স এসোসিয়েশনের এডমিন সায়েদ, লোকমান এবং রাজু ।
এছাড়াও রামু ব্লাড ডোনার’স এসোসিয়েশনের অর্ধশতাধিক স্বেচ্ছাসেবক রক্তের গ্রুপ নির্ণয় কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন।

প্রিন্ট করুন

বিভাগ: চট্টগ্রাম,সারাদেশ