মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য ভবন নির্মাণ হবে

বিডি সংবাদ টোয়েন্টিফোর ডটকম : মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ.ক.ম মোজাম্মেল হক বলেছেন, জাতির মেধাবী সন্তানরা যদি ইতিহাস না জানে তাহলে তাদের মধ্যে দেশপ্রেম আসবে না। তাই আগামী বিসিএস পরীক্ষায় পাকিস্তানিদের ২৪ বছরের শাসনামলে বাঙালিদের আন্দোলন সংগ্রামের ইতিহাসের উপর ৫০ নম্বর ও মুক্তিযুদ্ধের ৯ মাসের উপর ৫০ নম্বরের প্রশ্ন থাকবে।
শনিবার (২০ জানুয়ারি) বিকালে জেলার নাগেশ্বরী উপজেলার প্রতীক মুক্তমঞ্চে এক আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন।
মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রী বলেন, প্রত্যেক জেলা ও উপজেলায় দুঃস্থ মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য সরকারি জায়গায় ৫ তলা বিশিষ্ট ভবন নির্মাণ করা হবে। এ ছাড়া আগামী ২ মাসের মধ্যে নাগেশ্বরীসহ কুড়িগ্রাম জেলার সকল বধ্যভূমি সংরক্ষণ ও ভাস্কর্য নির্মাণের জন্য দরপত্র চাওয়া হবে।
মুক্তিযোদ্ধা যাচাই-বাছাই প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আবেদিতদের মধ্য থেকে যদি ১০ শতাংশের বেশি নতুন তালিকায় অন্তর্ভুক্ত হয়ে থাকে তাহলে তা বাতিল হবে। পুনরায় নতুন করে যাচাই-বাছাই করা হবে।
নাগেশ্বরী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোজাম্মেল হক প্রধানের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন কুড়িগ্রাম জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও সাবেক সংসদ সদস্য জাফর আলী, জেলা পরিষদ সদস্য কাজী নাজমুল হুদা লাল, যুগ্ম সম্পাদক লিটন চৌধুরী, রংপুর মেডিকেল কলেজ ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ডা. এম.এইচ সুমন প্রধান প্রমুখ।
এ সময় অন্যদের মধ্যে জেলা প্রশাসক আবু সালেহ ফেরদৌস খান, পুলিশ সুপার মেহেদুল করিম, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শঙ্কর কুমার বিশ্বাস, জেলা কৃষকলীগ সভাপতি ও প্রবীণ আওয়ামী লীগ নেতা মজিবুর রহমান বীরবল, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আছলাম হোসেন সওদাগর, উপজেলা আওয়ামী লীগ যুগ্ম সম্পাদক ও জেলা পরিষদ সদস্য মোস্তফা জামান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। ব্রেকিংনিউজ

প্রিন্ট করুন

বিভাগ: জাতীয়