ময়মনসিংহে প্রতি বছর যক্ষায় আক্রান্ত হচ্ছে ১২ শিশু!

স্বাস্থ্য ডেস্ক: ময়মনসিংহে ‘বার্ডেন অব চাইলডহুড টিউবিকুলাসিস এন্ড ওয়ে ফরোয়ার্ড’ বিষয়ক এক পরামর্শ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বুধবার (৯ জানুয়ারী) দুপুরে স্থানীয় একটি হোটেলে ‘আইআরডি’ ও ‘জাতীয় যক্ষা রোগ নিয়ন্ত্রন’ প্রতিষ্ঠান এ পরামর্শ সভার কর্মসুচীর আয়োজন করেন ।

সভায় তথ্য প্রকাশ করা হয়, দেশে ১ লক্ষ জনে ২২১ জন যক্ষা রোগী আছেন। প্রতি বছর তিন লক্ষ ৬৫ হাজার মানুষ এই রোগে আক্রান্ত হন। ময়মনসিংহ অঞ্চলে প্রাপ্ত বয়স্ক ১২ হাজার এবং এক হাজার দুই’শ শিশু এই রোগে আক্রান্ত হচ্ছে। যারা চিকিৎসা নিতে পেরেছেন সকলেই এখন সুস্থ। তবে চিকিৎসা না নেওয়া আক্রান্ত ৯৫% জন শিশুই মারা যায়।

সভায় প্রধান অতিথী ছিলেন জেলা স্বাস্থ্য অফিসের মেডিকেল অফিসার, (রোগ নির্ণয়) খালেদ মোশাররফ হোসেন। এসময় টেলিভিশন ও পত্রিকায় কর্মরত সাংবাদিকরা এই পরামর্শ সভায় উপস্থিত থেকে তাদের বক্তব্য তুলে ধরেন।

সভায় বেসরকারী সংস্থাটির প্রজেক্ট ডিরেক্টর ডা তৌফিক রহমান, প্রজেক্ট কো-অর্ডিনেটর মাহফুজুর রহমান কিনোট পেপার উপস্থাপন করেন। এ সভায় এনটিভির স্টাফ রিপোর্টার আইয়ুব আলী, একাত্তর টিভির বাবুল হোসেন, সমকালের মীর গোলাম মোস্তাফা, যুগান্তরের আতাউল করিম খোকনসহ ময়মনসিংহে কর্মরত গণমাধ্যমকর্মীরা তাদের মতামত তুলে ধরেন।

গবেষণা করে সভায় আরও প্রকাশ করা হয়, ২০৩৫ সালের মধ্যে দেশ থেকে রক্ষা রোগ নির্মুলে সরকারি ও বেসরকারি এই সেবা সংস্থা এক সাথে কাজ করছে। ২০১৮ সালের পনর নভেম্বর থেকে ময়মনসিংহে কাজ করছে সরকারি সেবা কেন্দ্রের সাথে কাজ করছে বেসরকারি সংস্থাটি। কর্মসুচী চলবে ২০১৯ সালের জুন পর্যন্ত।

প্রিন্ট করুন

বিভাগ: স্বাস্থ্য