নির্বাচিত খবর

যুদ্ধবিরতি চুক্তিতে ব্যর্থ লিবিয়া

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: পশ্চিমা সমর্থিত বিদ্রোহীদের হাতে কর্নেল মুয়াম্মার গাদ্দাফির পতনের পর জাতিসংঘ সমর্থিত (জিএনএ) সরকার ও খলিফা হাফতার নেতৃত্বাধীন (এলএনএ) বাহিনীর মধ্যে চরম সংকট বিরাজ করছে। এরই মধ্যে সোমবার দুই পক্ষের একটি যুদ্ধবিরতি চুক্তি স্বাক্ষরের কথা থাকলেও নিকটে গিয়ে ব্যার্থ হয়েছে এই সমঝোতা চুক্তি।

জাতিসংঘ সমর্থিত জাতীয় ঐক্যমতের সরকার (জিএনএ) একটি খসড়া যুদ্ধবিরতি চুক্তিতে স্বাক্ষর করলেও খলিফা হাফতারের নেতৃত্বাধীন লিবিয়ার ন্যাশনাল আর্মি (এলএনএ) তা বিবেচনার জন্য আরও সময় চেয়েছেন। সোমবার মস্কোয় দুই পক্ষের আলোচনা রাতের মতো স্থগিত হয়েছে।

সম্পতি তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোয়ান এবং রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন লিবিয়ার দুই পক্ষকে যুদ্ধবিরতির আহ্বান জানান। ত্রিপোলির জাতিসংঘ সমর্থিত সরকার এই আহ্বানকে স্বাগত জানান। পরে হাফতার বাহিনী ওই আহ্বান মেনে নিয়ে রাশিয়ায় লিবিয়ার সরকারের সঙ্গে আলোচনায় বসে। এ সময় দুই পক্ষের মধ্যে একটি যুদ্ধবিরতি চুক্তির খসড়া নিয়ে আলোচনা হয়।

সোমবারের আলোচনা শেষে রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাবরভ বলেন, হাফতার বাহিনী খসড়াটি ইতিবাচকভাবে নিয়েছে। আর বিবেচনার জন্য আগামীকাল মঙ্গলবার পর্যন্ত অতিরিক্ত সময় চেয়েছে।’ তিনি বলেন, ‘আশা করছি তার ইতিবাচক সিদ্ধান্ত নেবে। রাশিয়া ও তুরস্কের প্রতিনিধিরা সহযোগিতা অব্যাহত রাখবে।’

প্রসঙ্গত, ত্রিপোলিতে জাতিসংঘ স্বীকৃতিপ্রাপ্ত জাতীয় ঐক্য সরকার (জিএনএ) গত এপ্রিল থেকে শক্তিশালী খলিফা হাফতারের বাহিনীর হামলার শিকার হচ্ছে। লিবিয়ার পূর্বাঞ্চলের নিয়ন্ত্রণ রয়েছে হাফতার বাহিনীর কাছে। জাতিসংঘের হিসেবে এই অভিযানে অন্তত এক হাজার মানুষ নিহত ও অপর অন্তত ৫ হাজার আহত হয়েছে।

প্রিন্ট করুন

বিভাগ: আন্তর্জাতিক