রাঙ্গার কঠোর শাস্তি চেয়ে রাজপথে নূর হোসেনের মায়ের অবস্থান

বিডি সংবাদ টোয়েন্টিফোর ডটকম: স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলনে শহীদ নূর হোসেনকে স্বৈরাশাসক এরশাদের জাতীয় পার্টি-জাপার মহাসচিব মশিউর রহমান রাঙ্গা ইয়াবাখোর ও ফেনসিডিলখোর বলায় নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে অবস্থান কর্মসূচি পালন করছেন নূর হোসেনের মা ও তাঁর পরিবার।

সোমবার (১১ নভেম্বর) বিকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এই অবস্থান কর্মসূচি শুরু করেন তারা।

এ সময় নূর হোসেনের মা মরিয়ম বিবি বলেন,‘ রাজপথের নূর হোসেন বড়লোক হওয়ার জন্য নামে নাই। নামছে দেশের জন্য, জনগণের জন্য। ও (নূর) যদি নেশাখোর হতো, তাহলে দেশের জন্য জীবন দিতো না। কারণ, কোনও নেশাখোর দেশের জন্য জীবন দেয় না। যে লোক আমার ছেলেকে এই কথা বলেছে, তার (রাঙ্গা) বিচার জনগণের কাছে ছেড়ে দিলাম।’

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘রাঙ্গার বিরুদ্ধে আমি মামলা করার জন্য রাজি আছি।’

নূর হোসেনের ভাই আলী হোসেন বলেন, ‘দেশের জন্য প্রতিবাদ করে উনি যদি গাজাখোর, ইয়াবাখোর ও ফেনসিডিলখোর বলা হয় তাহলে ভবিষতে দেশের মানুষ কিভাবে অন্যায়ের প্রতিবাদ করবে? এ ধরনের কথা বললে তো কখনও ভালো মানুষ দেশের জন্য প্রতিবাদ করতে আসবে না। তখন স্বৈরাচার দেশে ভর করেছিল। ওই সময় আন্দোলন করে তাকে (এরশাদ) হঠানো হয়েছে। ওই সময় অনেক লোক মারা গেছে। এই শহীদদের এখন অপমান করা হলো। গণতন্ত্রের আন্দোলনে যারা মারা গেছেন, তাদেরকে এত ছোট করছেন কেন?’

তিনি আরও বলেন, ‘এদেশের জনগণ ওর (রাঙ্গা) বিচার করে দিতে পারে। আইন কোন কিছু না, আইন ধরাবাঁধা। জনগণের আদালতে অনেক বিচারই হয়েছে এদেশে। এমন কথা বলে ওর (রাঙ্গা) এদেশে থাকার অধিকার নাই। জনগণের প্রতি আহবান জানাবো, রাঙ্গাকে বয়কট করা হোক। ওর এমপি পদ কেড়ে নেওয়া হোক। ’

রাঙ্গাকে উল্টো নেশাখোর মন্তব্য করে তিনি, ‘উনি নিজেই তো নেশাখোর, কালকে উনি ‍যখন এসব কথা বলেন, তখন কেমন চোখগুলো বেরিয়ে যাচ্ছিলো।’

একটা আইনি ব্যবস্থা নিতে হলে সময় দরকার। সে তো আইনের ফাঁক দিয়ে বের হয়েও যেতে পারে বলেও মন্তব্য করেন তিনি। এছাড়াও প্রধানমন্ত্রীর কাছে সুষ্ঠু বিচারের দাবিও জানান। আর আজ রাঙ্গা জাতির কাছে ক্ষমা না চাওয়া পর্যন্ত অবস্থান কর্মসূচি চলবে বলেও জানান তিনি।

এসময় নূর হোসেনের ভাই দেলোয়ার হোসেন, আনোয়ার হোসেন এবং বোন শাহনাজ বেগমসহ পরিবারের অনেকেই উপস্থিত ছিলেন।

প্রিন্ট করুন

বিভাগ: রাজনীতি