রাণীশংকৈলে প্রতিরক্ষা সৈনিক কল্যাণ সংস্থার প্রধান কার্যালয়ের সাইনবোর্ড ভাংচুর

রাণীশংকৈল প্রতিনিধি : ঠাকুরগাওয়ের রাণীশংকৈলে প্রতিরক্ষা অবসর প্রাপ্ত সৈনিক কল্যাণ সংস্থা (রাহবা)’র প্রধান কার্যালয়ের সাইনবোর্ড ভেঙ্গে চুরমার করা হয়েছে ৬ই সেপ্টেম্বর সকালে। এব্যাপারে রাহবা সমিতির সেক্রেটারী গোলাম মোস্তফা বাদী হয়ে ঘটনার দিন বিকালে মোঃ আবু সায়ীদ পিতা হানিফ সরকার, হানিফ সরকার পিতা মৃত মোজাহার আলী, মাহামুদ পিতা মৃত গোলাম মোস্তফা গণকে বিবাদী করে পৌর মেয়র বরাবরে একটি লিখিত অভিযোগ করেন। অভিযোগে বলা হয়, পাঁচ পীর গোরস্থান সংলগ্ন রাহবা কল্যাণ সমিতির প্রধান কার্যালয়ের সাইনবোর্ডটি বিবাদীগণ অসৎ উদ্দেশ্যে ভেঙ্গে ফেলে এবং জমিটি তাদের দাবি বলে জানায়। এমনকি স্বার্থ হাসিলের জন্য সমিতির লোকজনের বিরুদ্ধে থানায় আপত্তিকর অভিযোগ করে বিবাদীগণ।

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক অনুমোদনকৃত রেজিষ্ট্রেশন নং ২২০/ঠাক/০০৪, চাঁদনী রোড, পাঁচ পীর গোরস্থান সংলগ্নে, রাণীশংকৈল ঠাকুরগাও এর প্রধান কার্যালয় স্থাপনের নিমিত্তে মাননীয় জাতীয় সংসদ সদস্য ঠাকুরগাও-৩ মোঃ ইয়াসিন আলী, ৩০১ সংরক্ষিত সাংসদ মোছাঃ সেলিনা জাহান লিটা, পৌর মেয়র আলমগীর সরকার, জেলা পরিষদ গণ জমি বন্দোবস্তের জন্য জেলা প্রশাসক মহোদয় বরাবরে সুপারিশ পত্র দেন। আবেদন ও সুপারিশ পত্রে উপজেলার ভান্ডারা মৌজা, জেএল নং ৮৯, খতিয়ান ০১ এর ১২০৩ দাগের ০৫ শতাংশ জমির কথা উল্লেখ করা হয়েছে। রাহবা কল্যাণ সমিতির সাধারণ সম্পাদক বলেন, ২০০৪ সাল থেকে উক্ত তপশীল ভূক্ত সম্পত্তিতে সমিতির প্রধান কার্যালয়ের কার্যক্রম পরিচালনা হয়ে আসছে।

এব্যাপারে হানিফ সরকারের সাথে কথা হলে তিনি জানান, আমি মন্ত্রণালয়ে জমিটি বন্দোবস্তের জন্য আবেদন করেছি।

রাহবা প্রতিরক্ষা অবসরপ্রাপ্ত সৈনিক কল্যাণ সংস্থার সভাপতি আলহাজ এজেড সুলতান আহম্মেদ বলেন, রাহবা কল্যাণ সংস্থার প্রধান কার্যালয়ের সাইনবোর্ডটি ভাঙ্গা ঠিক হয়নি। এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

প্রিন্ট করুন

বিভাগ: রংপুর,সারাদেশ