লালমনিরহাটে ছাত্রীকে যৌন নিপীড়ন, শিক্ষক আটক

লালমনিরহাট প্রতিনিধি: লালমনিরহাটের আদিতমারি উপজেলায় ছাত্রীকে যৌন নিপীড়নের অভিযোগে এক শিক্ষককে আটক করেছে পুলিশ। অভিযুক্ত শিক্ষকের নাম নাসির উদ্দিন ওরফে চান মিয়া (৪৫)। সোমবার (২১ অক্টোবর) দুপুরে ওই শিক্ষককে তার স্কুল থেকে আটক করা হয়।

এর আগে রবিবার (২০ অক্টোবর) রাতে ওই ছাত্রীর নানা বাদি হয়ে ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। পরে ওই মামলায় তাকে গ্রেফতার করা হয়।

আটক নাসির উদ্দিন উপজেলার ভেলাবাড়ি ইউনিয়নের পুরাতন ভেলাবাড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক। সে ভেলাবাড়ি ইউনিয়নের শালমারা গ্রামের মৃত বাবর আলীর ছেলে।

পুলিশ জানায়, শিক্ষক নাসির উদ্দিন ক্লাস চলাকালে ওই ছাত্রীর শরীরে প্রায়ই হাত দিতেন। এরমধ্যে গত ১৭ অক্টোবর সে ওই ছাত্রীর শরীরে আবারও হাত দেয়। পরে ছাত্রীটি স্কুল শেষে বাড়ি গিয়ে তার নানাকে ঘটনাটি জানায়। তার নানা বিষয়টি প্রধান শিক্ষক সুভাষ চন্দ্রকে জানালে তিনি বিষয়টি এড়িয়ে যান। এরপর ২০ অক্টোবর ছাত্রীর নানা বাদি হয়ে ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। পরে ওই মামলায় পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। তবে এ বিষয়ে স্কুলের প্রধান শিক্ষক কথা বলতে রাজি হননি।

উপজেলার প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার এনএম শরীফুল ইসলাম বলেন, ঘটনাটি শুনেছি। মামলার কাগজ পেলে তাকে শুধু বহিষ্কার নয়, তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করা হবে।

আদিততমারি থানার ওসি (তদন্ত) সাইফুল ইসলাম বলেন, ওই শিক্ষক ছাত্রীর শরীরের স্পর্শকাতর স্থানে হাত দিতেন। এ ঘটনায় ওই ছাত্রীর নানা মামলা করেছেন। পরে ওই মামলায় তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

প্রিন্ট করুন

বিভাগ: রংপুর,সারাদেশ