স্থানীয়দের হামলায় ২ কুবি শিক্ষার্থীসহ আহত ৩, আটক ১

কুবি প্রতিনিধি : কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের (কুবি) শিক্ষার্থীদের বহনকারী একটি বাসে স্থানীয় লোকজন ও সিএনজি ড্রাইভারদের হামলায় কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই শিক্ষার্থীসহ তিনজন আহত হয়েছেন। এ হামলার জেরে বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা কোটবাড়ী- কুমিল্লা সড়ক অবরোধ করে হামলার দ্রুত বিচার দাবি করেন।
বুধবার সকাল ৮ টায় সদর দক্ষিণ থানার আওতাধীন কোটবাড়ীর চাঙ্গিনীতে এই ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় পুলিশ হামলাকারী ১ সিএনজি চালককে আটক করে।
প্রত্যক্ষদর্শীসূত্রে জানা যায়, বুধবার সকালে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে শহরগামী বাস কোটবাড়ির চাঙ্গিনী মোড়ে পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি সিএনজি চালিত অটো রিকশা বাসের গতিরোধ করে রাস্তা দখল করে দাঁড়িয়ে থাকে। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা ও বাসের হেলপার এ ঘটনা নিয়ে কথা বলতে গেলে সিএনজি চালক তর্কে জড়িয়ে পড়ে। পরবর্তীতে স্থানীয় ব্যবসায়ী এরশাদ মিয়া, বাবুল হোসেন স্থানীয় লোকজন নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের উপর হামলা চালায়। এসময় ইংরেজি বিভাগের দশম ব্যাচের জাহিদ নহিম, ফিন্যান্স এন্ড ব্যাংকিং বিভাগের ১২তম ব্যাচের তুষার ও বাসের সহকারী আহত হন।
আহতদের বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিকেল সেন্টারে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়। এ ঘটনা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা জানতে পারলে কোটবাড়ি-কুমিল্লা সড়ক প্রায় দুই ঘন্টা অবরোধ করে শিক্ষার্থীরা দোষীদের বিচারের দাবি জানান। পরে বিশ্ববিদ্যালয় ও পুলিশ প্রশাসনের আশ্বাসে শিক্ষার্থীরা অবরোধ তুলে নেয়।
এ ঘটনায় সদর দক্ষিণ থানার ওসি নজরুল বলেন, ‘আমরা সিএনজি চালককে আটক করেছি এবং আগামী ১০ তারিখের মধ্যে সব হামলাকারীদের বিচারের আওতায় আনবো। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের বুঝিয়ে অবরোধ প্রত্যাহার করা হয়েছে।’
বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. কাজী মোহাম্মাদ কামাল উদ্দিন বলেন, আমি ঘটনাস্থলে গিয়ে আহত শিক্ষার্থীদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়ার ব্যবস্থা করেছি। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন থেকে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।
প্রিন্ট করুন

বিভাগ: চট্টগ্রাম,শিক্ষাঙ্গান