হাসিতেই সারবে নানা রোগ!

স্বাস্থ্য ডেস্ক: মানুষ সুখেই সাধারণত হেসে থাকে। সুখের এ হাসি যে অনেক রোগ সারাতেও পারে সে কথা জানেনা অনেকেই। যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ার লোমা লিন্ডা বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই গবেষক ড. লি বার্ক এবং ড. স্ট্যানলি ট্যান হাসির কয়েকটি উপকারিতার কথা তাদের গবেষণাপত্রে উল্লেখ করেছেন। চলনু হাসির এসব গুণ জেনে নিই…

রক্তচাপ কমায়: হাসার সময় আমাদের সারা শরীরে রক্ত চলাচলের গতি বৃদ্ধি পায়। হাসির ফলে শরীরের রক্তনালীগুলো প্রসারিত হতে শুরু করে। ফলে ব্লাড প্রেসার বা রক্তচাপ দ্রুত কমতে থাকে। তাই যারা উচ্চ রক্তচাপে ভোগেন, তারা রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখতে প্রাণ খুলে হাসতে পারেন।

হার্ট ভাল থাকে: প্রাণ খুলে হাসলে রক্তচাপ দ্রুত নিয়ন্ত্রণে চলে আসে। একই সঙ্গে হার্টের কার্যক্ষমতাও বৃদ্ধি পায়। এতে করে হার্ট অ্যাটাকের আশঙ্কাও কমে যায়।

স্ট্রেস কমায়: হাসির সময় আমাদের শরীরে এন্ডোরফিন হরমোনের ক্ষরণ হয়। এটি  ‘স্ট্রেস হরমোন’ নামেও পরিচিত। এটি কর্টিজল হরমোনের কার্যক্ষমতা হ্রাস করে। ফলে মানসিক, শারীরিক চাপ বা অবসাদ বোধ দ্রুত কমে যায়।

ফুসফুস ভাল থাকে: আমরা যখন হাসি, তখন ফুসফুস স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি প্রসারিত হয়। ফলে আমাদের ফুসফুস বিশুদ্ধ অক্সিজেনে ভরে ওঠে এবং শরীরে অক্সিজেনের মাত্রা বৃদ্ধি পায়। এর ফলে  ফুসফুসের কর্মক্ষমতাও বৃদ্ধি পায়।

মানসিক স্বাস্থ্যের উন্নতি ঘটায়: রাগ, হতাশা বা দুঃখ কমিয়ে দ্রুত মন ভাল করতে হাসির বিকল্প মেলা ভার! মানসিক চাপ বা অবসাদ কমাতে বিশেষজ্ঞরা তাই হাসির কথা বলেন।

টি-সেলের কর্মক্ষমতা বাড়ায়: হাসির ফলে টি-সেলের কার্যক্ষমতা বৃদ্ধি পায়। টি-সেল বা এই বিশেষ কোষের শক্তি যত বাড়ে, তত শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি পায়। ফলে কমে যায় অসুখ-বিসুখে ভোগার আশঙ্কা।

প্রিন্ট করুন

বিভাগ: স্বাস্থ্য