৩৬ বারের মতো পেছালো রিজার্ভ চুরির প্রতিবেদন

বিডি সংবাদ টোয়েন্টিফোর ডটকম: বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভের অর্থ চুরির ঘটনায় দায়ের করা মামলায় প্রতিবেদন দিতে আবারও ব্যর্থ হয়েছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ-সিআইডি। এ নিয়ে প্রতিবেদন দেয়ার সময় পেছাল ৩৬ বারের মতো। নতুন করে আগামী ২০ অক্টোবর প্রতিবেদন দাখিলের দিন ধার্য করেছেন আদালত।

মঙ্গলবার (১৭ সেপ্টেম্বর) ঢাকা মহানগর হাকিম সাদবীর ইয়াছীর আহছান চৌধুরীর আদালত এ আদেশ দেন। এদিন মামলার তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের দিন ধার্য ছিল। তবে মামলার সিআইডি প্রতিবেদন দাখিল না করায় নতুন এ দিন ধার্য করেন আদালত।

২০১৬ সালের ৫ ফেব্রুয়ারি যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংক থেকে জালিয়াতি করে সুইফট কোডের মাধ্যমে বাংলাদেশ ব্যাংকের ৮ কোটি ১০ লাখ ডলার চুরি করা হয়। এ ঘটনায় ২০১৬ সালের ১৫ মার্চ বাংলাদেশ ব্যাংকের অ্যাকাউন্টস অ্যান্ড বাজেটিং ডিপার্টমেন্টের উপ-পরিচালক জোবায়ের বিন হুদা অজ্ঞাতনামাদের আসামি করে একটি মামলা করেন। মতিঝিল থানায় মানি লন্ডারিং প্রতিরোধ আইন-২০১২ (সংশোধনী ২০১৫) এর ৪ ধারাসহ তথ্য ও প্রযুক্তি আইন-২০০৬ এর ৫৪ ধারায় ও ৩৭৯ ধায়ায় ওই মামলা দায়ের করা হয়।

সারা বিশ্বে আলোড়ন তোলা এই ঘটনাটির তদন্তে সিআইডির পাশাপাশি বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর ফরাসউদ্দিনকে দায়িত্ব দেয় অর্থ মন্ত্রণালয়। তিনি এরই মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিয়েছেন সরকারকে।

তৎকালীন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত একাধিক তারিখ দিয়েও এই প্রতিবেদন প্রকাশ করেননি। এই প্রতিবেদন প্রকাশ হলে ফিলিপাইন থেকে বাকি টাকা ফেরত আসা অনিশ্চিত হবে বলে দাবি করে মন্ত্রী বলেছেন, সব অর্থ ফেরত আসলেই প্রতিবেদন প্রকাশ হবে।

প্রিন্ট করুন

বিভাগ: আইন-আদালত