নির্বাচিত খবর

৩ দিনের ব্যবধানে ৩ গুণ বাড়লো আক্রান্ত, মোট মৃত্যু ৩২৬৭

মহামারি  নভেল করোনা ভাইরাসে দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আরও ২ হাজার ৬৫৪ জন আক্রান্ত হয়েছেন। এই সময়ের মধ্যে কোভিড-১৯ আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন ৩৩ জন। আগের দিনের তুলনায় মৃত্যু ও আক্রান্ত দুইই বেড়েছে।

ঈদুল আজহার দ্বিতীয় দিন গত রবিবার দেশে একদিনে ৮৮৬ জন কোভিড-১৯ আক্রান্ত হয়েছিলেন। সেই হিসাবে মাত্র ৩ দিনের ব্যবধানে আক্রান্ত ৩ গুণ বেড়ে গেলো।

দেশে এখন মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ২ লাখ ৪৬ হাজার ৬৭৪ জন হয়েছে এবং মোট মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে ৩ হাজার ২৬৭ জনে দাঁড়িয়েছে।

২৪ ঘণ্টায় মোট পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ২৩ দশমিক ৭৮ শতাংশ ও এই সময়ের মধ্যে মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৩২ শতাংশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় যারা মারা গেছেন তাদের মধ্যে পুরুষ ২৫ জন এবং নারী ৮ জন। এ পর্যন্ত কোভিড আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণকারীদের মধ্যে পুরুষ ২ হাজার ৫৭৪ জন, ৭৮ দশমিক ৭৯ শতাংশ এবং নারী ৬৯৩ জন, ২১ দশমিক ২১ শতাংশ।

বুধবার (০৫ আগস্ট) করোনা পরিস্থিতি নিয়ে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে স্বাস্থ্য অধিদফতরের নিয়মিত বুলেটিনে সংযুক্ত হয়ে স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা এসব তথ্য জানান।

ডা. সুলতানা বলেন, ‘গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ হয়েছে ১১ হাজার ৯৬৪টি। পরীক্ষা হয়েছে পূর্বের নমুনাসহ ১১ হাজার ১৬০টি। এ পর্যন্ত পরীক্ষা হয়েছে ১২ লাখ ১২ হাজার ৪১৬টি নমুনা।’

কোভিড-১৯ আক্রান্তদের মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ১ হাজার ৮৯০ জন। এ পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন ১ লক্ষ ৪১ হাজার ৭৫০ জন। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৫৭ দশমিক ৪৬ শতাংশ।

তিনি আরও বলেন, ‘গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যুবরণকারীদের বয়সভিত্তিক বিশ্লেষণে ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে ২ জন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে ৪ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে ৮ জন, ৬১ থেকে ৭০ বছরের মধ্যে ১০ জন, ৭১ থেকে ৮০ বছরের মধ্যে ৬ জন, ৮১ থেকে ৯০ বছরের ১ জন এবং ৯১ থেকে ১০০ বছরের ২ জন।’

এ পর্যন্ত বয়সভিত্তিক মৃত্যু শূণ্য থেকে ১০ বছরের মধ্যে ১৮ জন, ১১ থেকে ২০ বছরের মধ্যে ৩২ জন, ২১ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে ৮৭ জন, ৩১ থেকে ৪০ বছরে ২১৪ জন, ৪১ থেকে ৫০ বছরে ৪৫২ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরে ৯৩৮ জন, এবং ষাটোর্ধ্ব ১ হাজার ৫২৬ জন।

ডা. সুলতানা বলেন, ২৪ যারা ঘণ্টায় মৃত্যুবরণ করেছেন তাদের মধ্যে ঢাকা বিভাগে ১৮ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে ৯ জন, রংপুর ৩ জন, খুলনা বিভাগে ১ জন, রাজশাহী বিভাগে ১ জন, বরিশাল বিভাগে ১ জন করে রয়েছেন। তাদের মধ্যে হাসপাতালে মারা গেছেন ৩১ জন, বাড়িতে ২ জন।’

এ পর্যন্ত বিভাগভিত্তিক মৃত্যুর সংখ্যা ও শতকরা হারে ঢাকা বিভাগে ১ হাজার ৫৬৭ জন, চট্টগ্রামে ৭৮৪ জন, রাজশাহী ১৯৯ জন, খুলনা ২৩৮ জন, বরিশাল ১২৮ জন, সিলেটে ১৫৪ জন, রংপুরে ১২৭ জন, এবং ময়মনসিংহ বিভাগে ৭০ জন।

তিনি আরও জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে এসেছেন ৭৫৮ জন, ছাড় পেয়েছেন ৭৯৪ জন। এ পর্যন্ত মোট আইসোলেশনে গেছেন ৫৩ হাজার ৪০৫ জন। এ পর্যন্ত আইসোলেশন থেকে মুক্ত হয়েছেন ৩৪ হাজার ৯৫০ জন। বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন ১৮ হাজার ৪৫৫ জন।

ডা. সুলতানা জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় কোয়ারেন্টাইনে যুক্ত হয়েছেন ১ হাজার ৮৪৭ জন, ছাড় পেয়েছেন ২ হাজার ৬১৩ জন। এ পর্যন্ত মোট কোয়ারেন্টাইনে গেছেন ৪ লাখ ৪৩ হাজার ৬৭৯ জন। এ পর্যন্ত ছাড় পেয়েছেন ৩ লাখ ৯০ হাজার ৩২৯ জন। বর্তমানে কোয়ারেন্টাইনে আছেন ৫৩ হাজার ৩৫০ জন।

প্রিন্ট করুন

বিভাগ: জাতীয়