নির্বাচিত খবর

৯০ লাখ ২৬ হাজার পরিবারকে খাদ্য সহায়তা দিয়েছে আওয়ামী লীগ

রাপ্র ডেস্ক: করোনা ভাইরাসের সংকটে মানুষ কর্মহীন পড়া দিনমজুর, নিম্ন আয়ের অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ। ইতিমধ্যে দলীয় ভাবে আওয়ামী লীগের পক্ষে সারা দেশে ৯০ লাখ ২৬ হাজার পরিবারের মধ্যে খাদ্য সহায়তা এবং ৮ কোটি ৬২ লাখ টাকা অর্থ সহায়তা প্রদান করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৭ মে) এক ভিডিও বার্তায় দলটির সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের একথা জানিয়েছেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‍‘করোনা সংকট মোকাবেলা আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠন সমূহ বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মী, দলীয় সংসদ সদস্যসহ আমাদের জনপ্রতিনিধিগণ, আওয়ামী লীগের পক্ষে সারাদেশে ৯০ লাখ ২৬ হাজার পরিবারের মধ্যে খাদ্য সহায়তা এবং ৮ কোটি ৬২ লাখ টাকা অর্থ সহায়তা প্রদান করেছে। এখনো সাহায্য দান দান, ত্রাণ সামগ্রী ও নগদ টাকা বিতরণ অব্যাহত রয়েছে, সারা বাংলাদেশে, তৃণমূল পর্যায়ে।’

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘এছাড়াও আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে পিপিই, মাস্ক, গ্লাভস, স্যানিটাইজার, ব্লিচিং পাউডার স্প্রে মেশিনসহ সুরক্ষা সামগ্রীও বিতরণ করা হয়েছে। দেশের বিভিন্ন স্থানে ফ্রী এম্বুলেন্স সার্ভিস চালু করা হয়েছে। ভাম্রমাণ মেডিকেল টিম ও টেলিমেডিসিন ব্যবস্থার মাধ্যমে দেশের বিভিন্ন স্থানে চিকিৎসা সেবা প্রদান করা হচ্ছে।’

সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘আওয়ামী লীগ, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবের কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে জনগণের পাশে আছে। পিতা মুজিবের রাজনৈতিক আদর্শ, দর্শন এবং নিজের জীবনের অভিজ্ঞতা সমন্বিত বোঝা পড়া নিয়ে তিনি বাস্তবতার নিরিখে সব সময় জনগণের পাশে এসে যা যা করণী তাই করে যাচ্ছে। আজ এই মহামারি মোকাবেলায় দেশরত্ন শেখ হাসিনা যে ধৈর্য ও কর্মনিষ্ঠা, প্রজ্ঞা ও সাহসীকতার সাথে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন তাদের দেশে-বিদেশে প্রশংসিত হচ্ছে।’

তিনি বলেন, ‘বর্তমানে করোনায় আক্রান্ত ২১০টি দেশের মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান ৩৭তম। সামনে আরও কঠিন সময় আসছে বলে অনেকে আশঙ্কা প্রকাশ করেছে। এই চ্যালেঞ্জিং সময় অতিক্রম করতে হবে, আমাদের সাহসিকতার সাথে। তাই আমি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সকল স্তরের নেতাকর্মীদের মানসিক প্রস্তুতি রাখার আহ্বান জানাচ্ছি, এই দুর্যোগ মোকাবেলায়। আওয়ামী লীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, ছাত্রলীগসহ আমাদের সহযোগি সংগঠনের নেতাকর্মীরা কৃষকের ধান কেটে বাড়িতে পৌছে দেয়ার কর্মসূচি পালন করেছে অত্যন্ত সার্থকভাবে। ধান কাটা এরই মধ্যে সারাদেশে ৯০ ভাগ সম্পন্ন হয়েছে।’

৭ মে রাজনৈতিক ইতিহাসে একটি স্মরণীয় দিন জানিয়ে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘আজ ৭ মে আমাদের রাজনৈতিক ইতিহাসে একটি স্মরণীয় দিন। ২০০৮ সালের এই দিনে চিকিৎসা শেষ যুক্তরাষ্ট্র থেকে শত বাধা-বিপত্তি অতিক্রম করে দেশে ফিরে আসেন বঙ্গবন্ধু কন্যা আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা। তৎকালীন তত্ত্বাবধায়ক সরকার চেয়েছিল, তিনি যেন দেশে ফিরে না আসেন। কিন্তু বঙ্গবন্ধু কন্যা অসীম সাহসের সাথে সকল ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করে ফিরে আসেন, দেশের মাটিতে।’

তিনি বলেন, ‘তখনকার সরকার নেত্রীর ফিরে আসার দিনও নতুন মামলা দিয়ে ওয়ারেন্ট জারি করেন। তিনি যেন ফিরে আসতে না পারেন সেজন্য আন্তর্জাতিক ফ্লাইটের টিকেট না দেয়ার জন্য চাপ তৈরি করা। কিন্তু যার শরীরে বঙ্গবন্ধুর রক্ত, যার প্রাণো প্রবাহের দেশপ্রেম, তাকে বাধা দিয়ে রাখতে পারেনি তারা। তিনি দেশে ফিরে নির্বাচনে অংশ নেন। ২৯ ডিসেম্বরের নির্বাচনে বিপুল বিজয়ের মাধ্যমে সরকার গঠন করেছে, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে।’

সূত্র: ব্রেকিংনিউজ

প্রিন্ট করুন

বিভাগ: রাজনীতি