অপহরণের হুমকিতে সাবেক স্বামীর বিরুদ্ধে অভিযোগ

65
নিয়ামতপুর(নওগাঁ) প্রতিনিধি : নওগাঁর নিয়ামতপুরে সাবেক স্বামীর বিরুদ্ধে অশ্লীল ছবি ও ভিডিও ছড়ানোর হুমকি দেওয়ায় সাবেক স্বামীর বিরুদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন এক নারী। ওই নারীর নাম জেরিনা খাতুন (২০)। তিনি উপজেলার বাহাদুরপুর ইউনিয়নের আঘোর মুন্নাপাড়া গ্রামের জসীম উদ্দিনের মেয়ে। গত মঙ্গলবার (২১ জুন) রাতে থানায় উপস্থিত হয়ে সাবেক স্বামী পাঁড়ইল ইউনিয়নের গন্ধশাইল গ্রামের দুরুল হুদার ছেলে রনি (২৫) এর বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ করেন।
অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, গত ৮ মাস পূর্বে তাদের ছাড়াছাড়ি হয়। ছাড়াছাড়ি হওয়ার পর ফোন কথা বলতে অস্বীকার করলে রনির কাছে থাকা অশ্লীল ছবি ও ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দিবে বলে হুমকি প্রদান করে। গত ২১ জুন দুপুরে তানোর উপজেলার মাদারিপুর কলেজ থেকে টমটমে করে বাড়ি ফেরার পথে উপজেলার বাহাদুরপুর ইউনিয়নের নাকইল গ্রামে রাস্তার ওপর পথরোধ করে জোরপূর্বক অপহরণ চেষ্টা করলে টমটমে থাকা যাত্রী ও স্হানীয়রা জেরিনাকে উদ্ধার করে। জেরিনা খাতুন বলেন, ‘বিয়ের পর থেকেই আমাকে অত্যাচার করতো। রাতে নেশাগ্রস্ত অবস্থায় এসে মারধর করতো। মারধরের কা
রনে কয়েকবার বাবার বাড়িতে চলে এসেছিলাম। মারধর সহ্য করতে না পেরে পারিবারিক সম্মতিতে আমাদের ছাড়াছাড়ি হয়। ছাড়াছাড়ি হওয়ার পর থেকেই ফোন করে অশ্লীল ছবি ও ভিডিও ছড়ানোর হুমকি দিত মোবাইল ফোনে। ফোন দিতে নিষেধ করায় বন্ধুদের মাধ্যমে হুমকি দিত। গত মঙ্গলবার কলেজ থেকে ফেরার পথে আমাকে অপহরণের চেষ্টা করলে টমটমে থাকা যাত্রী ও স্হানীয়রা আমাকে উদ্ধার করে’।
জেরিনার বাবা জসীম উদ্দিন বলেন, গত দুই বছর আগে মেয়ের বিয়ে দিয়েছিলাম। যৌতুকের জন্য মারধরের কারনে ছাড়াছাড়ি করিয়ে নিতে হয়েছে।
রনি প্রতিবেদককে বলেন, জেরিনার কারনে আমার সংসার টিকে নি। আমি তার অত্যাচারে অতিষ্ঠ ছিলাম। যে অভিযোগ আমার বিরুদ্ধে করছে তার কোন ভিত্তি নেই। গত মঙ্গলবার আমি ও আমার দুলাভাই মোটরসাইকেল যোগে যাওয়ার পথে আমাদের ভীতু বলে সম্বোধন করে। আমরা কর্নপাত না করে চলে যাই।
নিয়ামতপুর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হুমায়ুন কবির বলেন, অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।
x