অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা নিরাপদ, দেওয়া হবে ষাটোর্ধ্বদের : মালয়েশিয়ার স্বাস্থ্যমন্ত্রী

0 59

অ্যাস্ট্রাজেনেকার তৈরি করোনার টিকা ব্যবহার করা নিরাপদ বলে ঘোষণা করেছে মালয়েশিয়ার স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ। বৈশ্বিক কোভাক্স সুবিধার মাধ্যমে কেনা টিকার প্রথম চালান হাতে পাওয়ার তিন দিন পর আজ সোমবার এ কথা জানাল দক্ষিণ-পূর্ব এশীয় দেশটি। বার্তা সংস্থা রয়টার্স এ খবর জানিয়েছে।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

টিকা নেওয়ার পর সম্ভাব্য রক্ত ​​জমাট বাঁধার কয়েকটি ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে টিকার ব্যবহার সীমিত বা সাময়িক বন্ধ করেছে কয়েকটি দেশ। তবে, অ্যাস্ট্রাজেনেকা বলছে, যুক্তরাজ্য এবং ইউরোপের নিয়ন্ত্রক সংস্থাগুলো তাদের পর্যালোচনায় দেখছে যে, টিকা নিলে উচ্চমাত্রার সুরক্ষা পাওয়া যায় এবং টিকাকরণের সুফলগুলো যেকোনো ধরনের ঝুঁকির তুলনায় অনেক বেশি।

মালয়েশিয়ার স্বাস্থ্যমন্ত্রী আধাম বাবা টেলিভিশনে প্রচারিত এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ‘আমি নিশ্চিত করে বলছি, অ্যাস্ট্রাজনেকার তৈরি টিকাটি নিরাপদ। এটি ৬০ বছর বা তদূর্ধ্ব বয়সীদের দেওয়া হবে।’

 

মালয়েশিয়া গত শুক্রবার অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকার প্রথম চালানে প্রায় দুই লাখ ৭০ হাজার ডোজ হাতে পেয়েছে।

 

মালয়েশিয়ার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা বলছেন, ৬০ বছর বা তদূর্ধ্ব বয়সীদের ক্ষেত্রে অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা ‘ব্যবহারের উপযোগী’ বলে প্রমাণিত। এবং অন্যান্য বয়সীদের ক্ষেত্রেও এই টিকা ব্যবহারের অনুমোদন দিতে প্রয়োজনীয় তথ্য খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

 

মালয়েশিয়া অ্যাস্ট্রাজেনেকার কাছ থেকে মোট এক কোটি ২৮ লাখ ডোজ টিকা নিচ্ছে। যার অর্ধেক আসছে কোভ্যাক্স কার্যক্রমের আওতায়।

 

Leave A Reply

Your email address will not be published.

x