আঁতাতের নির্বাচন এদেশে আর হবে না : মির্জা আব্বাস

59

আঁতাতের নির্বাচন এদেশে আর হবে না বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস। তিনি বলেছেন, আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অধীনে আর কোনো নির্বাচন নয়।

আজ বৃহস্পতিবার ঢাকা মহানগর বিএনপির (উত্তর দক্ষিণ) উদ্যোগে জাতীয় প্রেসক্লাবের সম্মুখে বিক্ষোভ সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন আব্বাস। ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির সদস্য সচিব আমিনুল হকের সভাপতিত্বে এবং ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সদস্য সচিব রফিকুল আলম মজনুর সঞ্চালনায় এ বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

মির্জা আব্বাস বলেন, ‘আসন ভাগাভাগি ও আঁতাতের নির্বাচন বাংলাদেশে হবে না, হতে দেওয়া হবে না। শেখ হাসিনার অধীনে যাঁরা নির্বাচনে যাবে, তাঁরা জাতীয় বেঈমান হবেন। তাঁদের বিরুদ্ধে এবং সরকারের বিরুদ্ধে একযোগে রাজপথে ব্যবস্থা নেব।’

আব্বাস বলেন, ‘প্রতিরোধ শুরু হয়ে গেছে এখন প্রতিঘাত করতে হবে। সভা-সমাবেশ মিটিং ও মিছিল মৌলিক অধিকার এগুলো করতে আর অনুমতি নেব না। অনুমতির তোয়াক্কা করব না। অবৈধভাবে ক্ষমতাসীনদের অনেকেই পালাতে শুরু করেছেন, আবার কেউ কেউ বিমানবন্দর থেকে ফেরত আসছেন। ভবিষ্যতে এঁদের কেউ আর পালাতে পারবে না।’

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরকে উদ্দেশ্য করে বিএনপির এই নেতা বলেন, ‘সময় এসেছে দলের কর্মীদের সাবধান করুন। অন্যতায় আগামীদিনের সরকার পতন আন্দোলনে বিএনপির কারও ওপর আঘাত এলে সবাই মিলে প্রতিরোধ করব, কাউকে বিন্দুমাত্র ছাড় দেওয়া হবে না।’

মির্জা আব্বাস বলেন, ‘প্রতিরোধ গড়ে উঠেছে। এর মাধ্যমেই এই সরকারের পতন ঘটাব। জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা করব।’

মির্জা আব্বাস আরও বলেন, ‘অনির্বাচিত প্রধানমন্ত্রীর আদেশ-নির্দেশ এখন কেউ মানে না, শোনে না। যদি তাঁর দলের নেতাকর্মীরাও মানত, তাহলে রাজনৈতিক দলগুলোর সভা-সমাবেশে বাধা দেওয়া হবে না বলে প্রধানমন্ত্রীর মন্তব্যের পরও বিএনপিসহ বিরোধী দলের কারও ওপর হামলা করা হতো না। বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের বাসা বাড়িতে হামলা চালাত না।’

প্রতিবাদ সমাবেশে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী প্রমুখ বক্তব্য দেন।

x