আইএসের সঙ্গে যোগাযোগের অভিযোগে যৌন লালসার শিকার নারীরা

0 372

আন্তর্জাতিক অনলাইন ডেস্ক : ইরাকে ইসলামিক স্টেটের সঙ্গে সম্পর্ক থাকার অভিযোগে মহিলা এবং শিশুদের ওপর শাস্তিস্বরূপ চলছে যৌন নির্যাতন। এমনকি বাড়িও ফিরতে দেওয়া হচ্ছে না তাদের, বিভিন্ন ক্যাম্পে তাদের ওপর চলছে অত্যাচার, মঙ্গলবার এমনই তথ্য প্রকাশ করেছে অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল।

লন্ডনের মানবাধিকার বিষয়ক এই আন্তর্জাতিক বেসরকারী সংস্থা আটটি ক্যাম্পের ৯২ জন মহিলার সাক্ষাৎকারের ওপর ভিত্তি করেই এই রিপোর্ট পেশ করে বলে জানা যায়। এই ক্যাম্পে অর্থের বিনিময়ে যৌন সম্পর্ক স্থাপনে বাধ্য করা হচ্ছে মহিলাদের। রয়েছে ধর্ষণের হুমকিও। অনেকে ধর্ষণের সাক্ষী হয়েছে, কেউবা সেই ভয়াবহ অত্যাচারের চিৎকারও শুনেছে।

প্রসঙ্গত, তালিবান এবং বিভিন্ন জঙ্গি গোষ্ঠী এই এলাকায় সক্রিয় হলেও, এই ঘটনার দায় এখনও কেউ স্বীকার করেনি বলে জানা গিয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত ডিসেম্বরেই জঙ্গি গোষ্ঠী আইএসের সঙ্গে যুদ্ধের সমাপ্তি ঘোষণা করে ইরাক সরকার। সরকারি সংবাদ মাধ্যমে ভাষণ দিয়ে দেশের প্রধানমন্ত্রী হায়দার আল আবাদি যুদ্ধের ইতি টানেন।

আইএসের অন্যতম বড় ঘাঁটি ইরাকের মোসুল অনেক আগেই দখল করেছে কুর্দিস-ইরাকি সেনা। সেনা অভিযানে তাদের সাহায্য করে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। মোসুল ঘিরেই নৃশংসতার ভয়াবহ নজির তৈরি করেছিল ইসলামিক স্টেট জঙ্গিরা।

বিশেষজ্ঞরা জানান, যুদ্ধ সমাপ্ত ঘোষণা করা হলেও আইএসের উগ্র ধর্মীয় ও নৃশংস তত্ত্ব এখনই শেষ হচ্ছে না। অন্য কৌশল নিয়ে ইসলামিক স্টেট ফের হামলা চালাতে মরিয়া। সেক্ষেত্রে তাদের অবস্থানের দিকে নজর রাখছে বিভিন্ন দেশের গোয়েন্দা এজেন্সি।

Leave A Reply

Your email address will not be published.