আইপিএলে বিদেশি প্লেয়ারদের না-পেলে সমস্যা হবে: ম্যাকালাম

সেপ্টেম্বর-অক্টোবরে আমিরশাহীতে হবে ২০২১ আইপিএলের শেষাংশ

0 79

সম্প্রতি ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড(BCCI) জানিয়ে দিয়েছে কোভিডের কারণে স্থগিত হয়ে যাওয়া চতুর্দশ সংস্করণের আইপিএলের(IPL) বাকি ম্যাচ সেপ্টেম্বর-অক্টোবর মাস নাগাদ সংযুক্ত আরব আমিরশাহীতে(UAE) হবে। তবে এক্ষেত্রে বিদেশি প্লেয়ারদের খেলানোটাই বিভিন্ন ফ্র্যাঞ্চাইজির কাছে চিন্তার বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। একাধিক দলের মূল চালিকাশক্তিই হল বিভিন্ন বিদেশি প্লেয়ার।

 

তাঁদের ঘিরেই প্রথম একাদশ বাছা হয়। এবার এই বিষয় নিয়ে মুখ খুললেন নিউজিল্যান্ডের প্রাক্তন অধিনায়ক এবং কলকাতা নাইট রাইডার্স(KKR) দলের হেড কোচ ব্রেন্ডন ম্যাকালাম(Brendon McCullum)। তিনি বললেন মরুশহরে যদি সিনিয়র বিদেশি প্লেয়ারদের না পাওয়া যায় তবে সেটি কিন্তু সমস্যার কারণ হয়ে দাঁড়াতে পারে তাঁর দলের কাছে।

ইংল্যান্ড অ্যান্ড ওয়েলস ক্রিকেট(ECB) বোর্ডের ডিরেক্টর অ্যাশলি গিলস(Ashley Giles) আগেই জানিয়ে দিয়েছেন আইপিএলের বাকি ম্যাচের জন্য তাঁরা তাঁদের পূর্বনির্ধারিত সূচিতে কোনও পরিবর্তন করতে আগ্রহী নন। অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট বোর্ডের তরফ থেকে এখনও কিছু জানানো হয়নি। তবে শোনা যাচ্ছে সংযুক্ত আরব আমিরশাহিতে আইপিএলের বাকি ম্যাচ খেলতে যেতে ইচ্ছুক নন কলকাতা নাইট রাইডার্স দলের অজি পেস অস্ত্র প্যাট কামিন্স(Pat Cummins)।

 

মরু শহরে যদি প্যাট কামিন্স খেলতে না আসেন এবং ইংল্যান্ড বোর্ডের তরফ থেকে যদি ইয়ন মর্গ্যানকে(Eoin Morgan) না ছাড়া হয় তবে সমস্যায় পড়তে পারে কলকাতা। এই বিষয়ে স্পোর্টস টুডে-কে(Sports Today) দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে ম্যাকালাম বলেন, ‘আমরা যদি ওঁদের না পাই তবে সেটা খুবই হতাশাদায়ক হবে। দলের গঠনগত দিক থেকে আমরা ওই ক্রিকেটারদের ওপর নির্ভরশীল। আমরা ওঁদের দলে নিয়েছিলাম কারণ আমরা জানতাম ওঁরা লম্বা দৌড়ের জন্য তৈরি থাকবে এবং চাপের মধ্যেও মাথা ঠাণ্ডা রাখতে পারবে।

 

আমার মনে হয় প্যাট কামিন্স আর অইন মর্গ্যান খুব ঠাণ্ডা মাথার প্লেয়ার। আমরা যদি ওঁদের না পাই, তাহলে আমাদের ওঁদের ভূমিকা পালন করতে সক্ষম এমন প্লেয়ার খুঁজতে হবে। সেটা কিন্তু বেশ রোমাঞ্চকর এবং অন্য প্লেয়ারদের কাছে একটা ভালো সুযোগও হয়ে উঠতে পারে’।

ম্যাকালাম বলেন এমন পরিস্থিতি তৈরি হলে শুভমন গিল(Shubman Gill), নীতিশ রানার(Nitish Rana) মতো প্লেয়ারদের কাছে একটা সুযোগের দরজা খুলে যাবে। তিনি বলেন, ‘কিছু ভারতীয় তরুণ আছে যাঁরা হয়তো এখনও এই দায়িত্বের জন্য প্রস্তুত নয়। কিন্তু এটা শুভমন গিল, নীতিশ রানাদের কাছে একটা ভালো সুযোগ, যেখানে ওঁরা নিজেদের ক্ষমতার বাইরে গিয়ে দলকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার দায়িত্ব পালন করবে। ভবিষ্যতে কী হতে চলেছে তা জানতে আমি খুব আগ্রহী। তবে এই পথচলা কিন্তু খুব সহজ হবে না’।

 

২০২১ আইপিএলের প্রথম লেগ কলকাতার জন্য ভালো যায়নি। সাতটির মধ্যে মাত্র দুটি ম্যাচ জিতেছে তাঁরা। পয়েন্ট টেবিলে সপ্তম স্থানে রয়েছে ইয়ন মর্গ্যান-দীনেশ কার্তিকের(Eoin Morgan-Dinesh Karthik) কলকাতা। তবে ম্যাকালাম আশাবাদী মরুশহরে তাঁর দল ভালো পারফর্ম করবে। অতীত থেকে শিক্ষা নিয়ে বাকি দল গুলোর দিকে কড়া চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দেবে কেকেআর।

 

Leave A Reply

Your email address will not be published.

x