আইপিএল নিয়ে ভাবছেন না অসি ক্রিকেটাররা

১১৮
অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেট দলের অধিনায়ক প্যাট কামিন্স। ছবি : সংগৃহীত

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) নতুন আসরের ডামাঢোল শুরু হয়ে গেছে। আগামী আগামী ১২ ও ১৩ ফেব্রুয়ারি বেঙ্গালুরুতে বসছে আসন্ন আইপিএলের মেগা নিলাম। বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় টুর্নামেন্টের নিলাম নিয়ে মুখিয়ে ক্রিকেটাররা। কিন্তু এসব নিয়ে এখন মোটেই ভাবছে না অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটাররা। আইপিএলের অন্যতম দামি ক্রিকেটার জানালেন, আইপিএল নিয়ে ভেবে সময় নষ্ট করছেন না তাঁরা।

কদিন বাদেই পাকিস্তান সফরে যাবে অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেট দল। স্বাগতিকদের বিপক্ষে তিন ফরম্যাটে লম্বা সিরিজ খেলবে অসিরা। তাই এ বারের আইপিএলে অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেটারদের শুরুর দিকে পাওয়ার সম্ভাবনা খুব কম। আপাতত জাতীয় দলের সিরিজকেই বেশি গুরুত্ব দিচ্ছেন প্যাট কামিন্সরা। সেই কারণে পাকিস্তান সফরে যাওয়া ক্রিকেটারদের আইপিএলে পাওয়া যাবে না বলেই ধরে নেওয়া হচ্ছে।

অস্ট্রেলিয়ার টেস্ট অধিনায়ক কামিন্স বলেন, ‘সত্যি বলতে আমি জানি না আইপিএলের নিলাম কবে। ১৩, ১৪ না ১৫ ফেব্রুয়ারি তা আমার মনে নেই। ওই নিয়ে ভেবে সময় নষ্ট করছি না।’

এ ছাড়া ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার প্রধান নির্বাচক জর্জ বেইলি বলেন, ‘আইপিএল খেলার জন্য আমরা সব সময়ই তৈরি। কিন্তু অস্ট্রেলিয়ার খেলা থাকলে আইপিএলের জন্য ক্রিকেটার ছাড়া সম্ভব হবে না।’

এ বারের আইপিএলের নিলামে উঠবেন অস্ট্রেলিয়ার ৪৭ জন ক্রিকেটার। কলকাতা নাইট রাইডার্স, পাঞ্জাব কিংস এবং রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরর অধিনায়ক প্রয়োজন। সেই কারণে প্যাট কামিন্স, ডেভিড ওয়ার্নার, স্টিভ স্মিথদের কিনতে আগ্রহী হতে পারে দলগুলো। কিন্তু শুরুর দিকে পাকিস্তান সফরে থাকায় অসি ক্রিকেটারদের নেতৃত্ব দিতেও ভাববে দলগুলো।

আগামী ৪ মার্চ, রাওয়ালপিন্ডি টেস্ট দিয়ে শুরু হবে অস্ট্রেলিয়া ও পাকিস্তানের লড়াই। সিরিজের পরের দুই ম্যাচ ১২ ও ২১ মার্চ। সিরিজটি আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের অংশ।

এরপর ২৯ মার্চ শুরু হবে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ। পরের দুটি ম্যাচ ৩১ মার্চ ও ২ এপ্রিল। এই তিন ম‍্যাচ আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপ সুপার লিগের অংশ। ওয়ানডে সিরিজ শেষে একমাত্র টি-টোয়েন্টি ম্যাচটি মাঠে গড়াবে ৫ এপ্রিল।

Comments are closed.