আদিবাসী শিক্ষার্থীদের জন্য বিশেষ প্রণোদনার দাবি ও শিক্ষাবৃত্তি প্রদানের প্রতিবাদে মানববন্ধন

0 18

৯ আগস্ট আন্তর্জাতিক আদিবাসী দিবস ২০২০ পালন উপলক্ষে “করোনায় আদিবাসী শিক্ষার্থীদের জন্য বিশেষ প্রণোদনার দাবি ও চাটমোহর উপজেলায় গেজেটভুক্ত আদিবাসী ব্যতীত অ-আদিবাসীদের মাঝে শিক্ষাবৃত্তি প্রদানের প্রতিবাদে” আদিবাসী ছাত্র পরিষদ চাটমোহর উপজেলা কমিটির উদ্যোগে আজ রবিবার সকাল ১১টায় বাঘলবাড়ী কৈ গ্রামে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধন শেষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

আদিবাসী ছাত্র পরিষদ চাটমোহর উপজেলা কমিটির আহ্বায়ক অপূর্ব কুমার সিং এর সভাপতিত্বে মানববন্ধন ও আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন, জাতীয় আদিবাসী পরিষদ কেন্দ্রীয় সদস্য বিভূতী ভূষণ মাহাতো, আদিবাসী ছাত্র পরিষদ চাটমোহর উপজেলা কমিটির যুগ্ম-আহ্বায়ক আস্তিক মাহাতো, সুখী মাহাতো, শিক্ষার্থী মৃদুল মাহাতো, নিপেন মাহাতো প্রমূখ।

বক্তারা বলেন, করোনা মহামারীর কারণে এবছর আন্তর্জাতিক আদিবাসী দিবসের প্রতিপাদ্য নির্ধারণ করা হয়েছে “করোনা মহামারীতে আদিবাসীদের জীবন-জীবিকার সংগ্রাম।” করোনায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় আদিবাসী শিক্ষার্থীদের লেখাপড়া হুমকির মূখে পড়ে গেছে। এতে আদিবাসী শিক্ষার্থীরা শিক্ষা থেকে ঝরে পড়বে। কিন্তু আদিবাসী শিক্ষার্থীদের ঝরে পড়া রোধে সরকারি কোনো পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়নি। আদিবাসী শিক্ষার্থীদের জন্য বিশেষ প্রণোদনার ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।

বক্তারা আরও বলেন, ২০১৯-২০২০ অর্থবছরে চাটমোহর উপজেলায় শিক্ষাবৃত্তি বিতরণে গেজেটভুক্ত আদিবাসী শিক্ষার্থীদের বি ত করা হয়েছে। মোট ২৩৬ জন শিক্ষার্থী মাঝে এই শিক্ষা বৃত্তি দেওয়া হলেও তালিকায় গেজেটভুক্ত আদিবাসীর জনগোষ্ঠীর বাইরের পাল, কুন্ডু, দে, চুর্ণকার, বাসফোর, মূখার্জি, দাস পদবীধারী অনেক নাম পাওয়া গেছে। এতে আদিবাসী শিক্ষারা শিক্ষাবৃত্তি বি ত হয়েছে। অ-আদিবাসীদের মাঝে শিক্ষাবৃত্তি দেওয়া আদিবাসী শিক্ষার্থীরা ব্যাপক ক্ষুব্ধ।

বক্তাদের দাবি, করোনায় ঝরে পড়া রোধে আদিবাসী শিক্ষার্থীদের জন্য বিশেষ প্রণোদনার ব্যবস্থা নিতে হবে। গেজেটভুক্ত আদিবাসী ব্যতীত শিক্ষাবৃত্তির অর্থ বিতরণ করা যাবে না। এটা কোনোভাবেই মেনে নেওয়া হবেনা। আদিবাসীদের জন্য বরাদ্দ আদিবাসীদেরকেই দিতে হবে। এছাড়াও অ-আদিবাসী কর্তৃক পরিচালিত আদিবাসী নামের সমিতিগুলো বাতিল করতে হবে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.