আফগানিস্তানে ভূমিকম্পে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৯২০

34
আফগানিস্তানের পাকতিকা প্রদেশে ভূমিকম্পে ভয়াবহ ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। ছবি : সংগৃহীত

আফগানিস্তানের পাকতিকা প্রদেশে ৬ দশমিক ১ মাত্রার শক্তিশালী ভূমিকম্পে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৯২০ জনে দাঁড়িয়েছে। এ ছাড়া ভূমিকম্পে বহুলোক আহত হয়েছে বলে জানিয়েছেন তালেবান সরকারের কর্মকর্তারা। আফগানিস্তানের সংবাদ সংস্থা বাখতার নিউজ এজেন্সির বরাত দিয়ে সংবাদমাধ্যম বিবিসি এ তথ্য দিয়েছে।

পাকিস্তান সীমান্তবর্তী আফগানিস্তানের পূর্বাঞ্চলে স্থানীয় সময় মঙ্গলবার দিবাগত রাত দেড়টার কিছুক্ষণ পরে ভূমিকম্পটি আঘাত হানে।

তালেবান নেতা হিবাতুল্লাহ আখুন্দজাদা বলেছেন, শত শত বাড়ি তছনছ হয়ে গেছে এবং মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে।

দেশটির দুযোর্গ ব্যবস্থাপনা উপমন্ত্রী সারাফুদ্দিন মুসলিম এক সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন, অন্তত ৯২০ জন এই ভূমিকম্পে নিহত হয়েছেন। এ পর্যন্ত আহতের সংখ্যা অন্তত ৬০০।

এর আগে আগানিস্তানের তালেবান সরকারের মুখপাত্র বিলাল কারিমি টুইটে বলেন, ‘দুঃখজনকভাবে গত রাতে পাকতিকা প্রদেশের চার জেলায় প্রকট ভূমিকম্প হয়েছে। কয়েকশ মানুষের প্রাণহানি ঘটেছে এবং এতে ধসে পড়েছে বহু ভবন।’

ভূমিকম্পের ফলে আফগানিস্তানের পাকতিকা প্রদেশের অবস্থা জানাতে প্রথম অবস্থায় আজ বুধবার দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সালাহউদ্দিন আইয়ুবী বলেছিলেন,  ২৫৫ জন নিহত হয়েছে। এ ছাড়া খোস্ত প্রদেশে ২৫ জন নিহত হয়েছেন।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ছবি ও ভিডিওতে দেখা গেছে—বহু ঘরবাড়ি, সড়ক ও ভবন ধসে পড়েছে। আহত মানুষজনকে স্ট্রেচারে করে নিতে দেখা যায়।

আফগানিস্তানের দক্ষিণ-পূর্ব দিকের খোস্ত শহর থেকে উৎপত্তি হওয়া ভূমিকম্পটির ব্যপ্তি ছিল ৪৪ কিলোমিটার। এ ভূমিকম্পের ফলে আফগানিস্তান, পাকিস্তান ও ভারতের বিভিন্ন এলাকায় কম্পন অনুভূত হয়েছে বলে জানায় ইউরোপিয়ান মেডিটেরিনিয়ান সিসমোলজিক্যাল সেন্টার। আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুল এবং পাকিস্তানের রাজধানী ইসলামাবাদেও ভূকম্পন অনুভূত হয়।

x