আলুতেই ফিরবে জৌলুস, মাখলেই হবে ম্যাজিক

0 53

মৌমিতা পোদ্দার, কলকাতা:  ‘আলু’ সর্বজনবিদিত এই সব্জিটি সেই পাল যুগ থেকে গোটা এশিয়া মহাদেশে জনপ্রিয়। নানাভাবে আলু রান্নার পাশাপাশি নিয়মিত ব্যবহারে ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়াতে এর জুড়ি নেই। কিন্তু আপনি কী জানেন? আপনার রান্নাঘরে সহজলভ্য এই সব্জিটি ত্বকের যত্নে দারুণ উপকারী। তাহলে আসুন জেনে নিন রুপচর্চায় কীভাবে আলু ব্যবহার করা হয়।

দেখতে গোলগাল কার্বোহাইড্রেট সমৃদ্ধ এই সবজি আপনার ত্বকের কালো দাগছোপ, ট্যান, র্যাশ এবং ব্রণ কমাতে দারুণ কার্যকরী। নিয়মিত একটুকরো আলু ব্যবহারে প্রাণবন্ত হয়ে উঠবে আপনার ত্বক। পার্লার ছাড়াই ঘরোয়া পদ্ধতিতে এই আলু দিয়ে রুপচর্চায় আপনাকে সকলের কাছে করে তুলবে মোহনীয়।

১:- ত্বকের কালো দাগ সহ ট্যান দূর করতে আলুর ব্যবহার অনস্বীকার্য। ত্বকের কালো দাগছোপ দূর করতে মাঝারি সাইজের একটি আলু খোসা ছাড়িয়ে মিক্সিতে ভালো করে ব্ল্বেন্ড করুন। এরপর ওই আলুর রস মুখের যেসমস্ত জায়গায় দাগছোপ রয়েছে সেখানে সেখানে লাগিয়ে মিনিট পনেরো শুকিয়ে নিন। পুরো রস শুকিয়ে গেলে ঠান্ডা জলে ভালো করে মুখ ধুয়ে ফেলুন। প্রতিদিন এটি ব্যবহারে ধীরে-ধীরে আপনার ত্বকের স্বাভাবিক উজ্জ্বল্যতা ফিরে আসতে বাধ্য।

২:- ব্রণ দূর করতে আলুর রসে কিছুটা গ্লিসারিন মিশিয়ে আলতো করে সারা মুখে ম্যাসাজ করুন ভালোভাবে। কুড়ি মিনিট ধরে ম্যাসাজ করার পর মুখ শুকিয়ে গেলে পরিষ্কার জলে ধুয়ে ফেলুন। ব্রণের সমস্যা থেকে চিরতরে মুক্তি পেতে এটি সপ্তাহে অন্তত দুদিন ব্যবহার করুন। চাইলে ফেসপ্যাক বানিয়েও ব্যবহার করতে পারেন।

৩:- যারা ওয়েলি স্কিনের জন্য অ্যাকনের সমস্যায় ভুগছেন দীর্ঘদিন ধরে অনেক ক্রীমও ইতিমধ্যে মেখে ফেলেছেন কিন্তু কোনও সুরাহা মেলেনি। তাদের এই সমস্যা দূর করতে আলু ভীষন উপকারী একটি জিনিস। প্রথমে একটা আলুর সঙ্গে কিছু পরিমান টমাটো পাল্প,বাদাম তেল, এক চা-চামচ মধু মিশিয়ে পাঁচ মিনিট ধরে সারা মুখে ম্যাসাজ করুন। এইভাবে কুড়ি মিনিট থাকার পর ভালো জল দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। বাদাম তেলে রয়েছে অ্যান্টি অক্সিডেন্ট যা আমাদের নির্জীব ত্বকের উজ্জ্বলতা ফেরাতে এবং মুখের চামড়া পরিষ্কার রাখতে সাহায্য করে।

৪:- চোখের নীচের কালোদাগ দূর করতেও আলু ভীষন উপকারী একটি সবজি। কাজের চাপ হোক বা রাত জেগে সোশ্যাল সাইটে অন থাকা এখন যেন ট্রেন্ড হয়ে দাঁড়িয়েছে। যারফলে রাতে পর্যাপ্ত ঘুম না হওয়ায় চোখের নীচে কালো দাগ পড়তে শুরু করে। দীর্ঘদিন এইরকম চলতে থাকলে আমাদের স্বাস্থ্যের উপর এর কুপ্রভাব পড়ে। ফলে এই সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে হাতের কাছে থাকা সস্তার আলুই আপনার জন্য মুশকিল আসান।

প্রতিদিন রাতে একচামচ আলুর রসের সঙ্গে কিছুটা শসার রস মিশিয়ে হালকা করে চোখের উপর,নীচ এবং চারিদিক ভালো করে বুলিয়ে নিন এরপর ঘুমিয়ে পড়ুন। সারা রাত এইভাবে থাকার পর সকালে ঘুম থেকে উঠে পরিষ্কার জলে ভালো করে মুখ ধুয়ে ফেলুন।

এরপর তফাৎটা আপনি নিজেই উপলদ্ধি করতে পারবেন। তবে আপনার ত্বকের অন্য কোনও গুরুতর সমস্যা থাকলে এটি ব্যবহারের আগে অবশ্যই একজন বিশিষ্ট চর্মরোগ বিশেষজ্ঞকে দেখিয়ে নিন।

 

Leave A Reply

Your email address will not be published.