ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে অভিযোগ করায় ক্ষোভে ফুঁসছে এলাকাবাসী

54

দূর্গাপুর প্রতিনিধি: রাজশাহী জেলার দুর্গাপুর উপজেলার দেলুয়াবাড়ি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান রিয়াজুল ইসলামের বিরুদ্ধে জোরপূর্বক পুকুর জবরদখলের অভিযোগ করায় ক্ষোভে ফুঁসছে দেলুয়াবাড়ি ইউনিয়নের সাধারণ জনগণ।

০৮/০৮/২২ মঙ্গলবার সকালে সরোজমিনে গেলে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক দেলুয়াবাড়ী ইউনিয়নের একাধিক ব্যক্তি জানান, চেয়ারম্যান রিয়াজুল ইসলাম একজন ভালো মানুষ।

চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ মিথ্যা বানোয়াট মনগড়া এবং ভিত্তিহীন ব্যক্তিগত জেরে জনপ্রিয় এই চেয়ারম্যান এর মান ক্ষুন্ন করার জন্য অপপ্রচার চালানো হচ্ছে বলে একাধিক সূত্রে জানা গেছে।

এ বিষয়ে দুই বারের ইউপি চেয়ারম্যান রিয়াজুল ইসলাম কাছে জানতে চাইলে তিনি সাংবাদিকদের জানান।

১০ বছর পূর্বে প্রচলিত দরে১৩ মাসে এক বছর মেয়াদে ৭৬ বিঘা পুকুর লিজ নেই। যার মেয়াদ এখনো ৯ মাস রয়েছে। যার সকল প্রমাণাদি(মূল স্ট্যাম্প)আমার কাছে সংরক্ষিত রয়েছে, সকল কিছু প্রকাশ্য ৬৩ জন মালিকপক্ষ জেনে-বুঝে সাক্ষীর সম্মুখে চুক্তি স্বাক্ষর করে। কোনভাবেই চুক্তির জালিয়াতি করার সুযোগ নাই।

বর্তমানে পুকুরের দাম বৃদ্ধি পাওয়ার লোভের বশবর্তী হয়ে মালিকপক্ষ আমার প্রাপ্য অধিকার থেকে বঞ্চিত করতে নানা রকম চক্রান্ত ও ষড়যন্ত্র লিপ্ত হয়েছে। আমি একজন সফল মৎস্য চাষী, এছাড়াও আমার একাধিক পুকুর রয়েছে, এমন জঘন্য কাজ মাত্র ৯ মাসের জন্য করব তা বিশ্বাসযোগ্য নয়। পুকুরে বর্তমান মাছ রয়েছে, যার আনুমানিক বাজার মূল্য এক কোটি টাকা।

এমন অবস্থায় তারা বিভিন্ন মাধ্যম দিয়ে আমার উপর চাপ প্রয়োগ হুমকি-ধামকি দিচ্ছে আমার সম্মান হানি ও আর্থিক লোকসান করতেই এমন মিথ্যা অভিযোগ তোলা হচ্ছে। এমন অভিযোগ মিথ্যা, বানোয়াট , ভিত্তিহীন ও মনগড়া এই অভিযোগকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানাচ্ছি।

এ বিষয়ে মূল অভিযোগকারী মান্নান এবং আলমগীর এর সাথে কথা বলে জানা গেছে ১০ বছর আগে তারা লিজ দিয়েছে তাতে লিজ দাতারা স্বাক্ষর দিয়েছে কিন্তু লিজ দাতারা কেউ জানেনা ১৩ মাসে বছর।

অভিযোগকারী আব্দুল মান্নানের ছেলে ফোন দিয়ে সাংবাদিকে জানান বিশ্বাস করে স্বাক্ষর দিয়েছিল তারা জানত না ১৩ মাসে এক বছর নিবে, তিনি এমনটাও বলেন যদি ২০ বছর ও লিখে নিতো তাও কিছু করার ছিল না কারণ গ্রামের মানুষ এত বুঝে না।

পুকুরে মসজিদের জমি থাকায় মসজিদ কমিটির সভাপতি লোকমান এই অভিযোগ বিষয়ে জানালে তিনি বলেন এ বিষয়ে তিনি কিছু জানেন না এবং কারা অভিযোগ করেছে সেই বিষয়ে তার জানা নাই।

ওয়ারিশ সূত্রে পুকুরের ভাগীদার জমশেদ কে বিষয়টি জানালে তিনি বলেন বিষয়টি সম্পূর্ণ একটা চক্রান্ত সে সময় ১৩ মাসে বছর মর্মে তারা রিয়াজুল এর কাছে পুকুর লিজ দেয় আরো কিছু অভিযোগকারী কে ফোন দিলে তারা ফোন রিসিভ করেনি।

x